সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

হযরত আলী (আ.)-এর বাণী : নাহজুল বালাগা থেকে

পোস্ট হয়েছে: জানুয়ারি ২২, ২০১৪ 

news-image

হযরত আলী (আ.) বলেন : ‘নিশ্চয়ই মনের কতকগুলো তীব্র চাহিদা বা কামনা রয়েছে। মনের গতি ও অধোগতি রয়েছে। কাজেই মনের চাহিদা ও গতি লক্ষ্য করে তাকে কাজে লাগাও। কারণ, মনকে জোরপূর্বক কর্মে প্রবৃত্ত করলে মন অন্ধ হয়ে যায়।- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ১৮৪

হযরত আলী (আ.) বলতেন : ‘রাগের অবস্থায় কখন আমি স্বীয় রোষ দমন করব? যখন প্রতিশোধ গ্রহণে অপারগ হই আর আমাকে বলা হয় : ‘যদি ধৈর্যধারণ করতে’, তখন অথবা যখন আমি প্রতিশোধ গ্রহণে সক্ষম হই এবং আমাকে বলা হয় : ‘যদি তুমি ক্ষমাশীল হতে’, তখন?’ (অর্থাৎ রোষ বা রাগ দমন করা সর্ব অবস্থায়ই একটি উত্তম কর্ম হিসাবে পরিগণিত, চাই রাগান্বিত ব্যক্তি কোন বিষয়ে প্রতিশোধ গ্রহণে অক্ষম হউক কিংবা সক্ষম।) নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ১৮৫

দুনিয়াকে ভর্ৎসনা করে হযরত আলী (আ.) বলেন : ‘মানুষ হলো দুনিয়ার সন্তান। আর মাকে ভালোবাসে বলেই কাউকে তিরস্কার করা যায় না।’- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ২৯৫

হযরত আলী (আ.) বলেন : ‘মিসকিন হলো আল্লাহ তাআলা কর্তৃক প্রেরিত ব্যক্তি। যে তাকে বঞ্চিত করল, সে যেন আল্লাহ তাআলাকে বঞ্চিত করল। আর যে তাকে কিছু দান করল, সে যেন আল্লাহ তাআলাকেই দান করল।’ (অর্থাৎ আল্লাহ তাআলার বিধান হচ্ছে এই যে, যারা অর্থশালী তারা অবশ্যই দরিদ্র ও সম্পদহীন লোকদের জন্য সম্পদ ব্যয় করে তাদের প্রতি করুণা প্রদর্শন করবে। যদি এরূপ করে তাহলে তা যেন আল্লাহকেই দান করা হলো আর তা দিতে অস্বীকার করা মানে আল্লাহকেই কিছু দিতে অস্বীকার করা।)- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ২৯৬

হযরত আলী (আ.) ব্যভিচার সম্পর্কে বলেছেন : ‘সম্ভ্রমশীল ব্যক্তি কখনো ব্যভিচারে লিপ্ত হয় না।’- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ২৯৭

হযরত আলী (আ.) বলেছেন : ‘মৃত্যুর নির্ধারিত লগ্ন বা সময় মানুষের পাহারাদার হিসাবে যথেষ্ট।’ (অর্থাৎ মৃত্যুর নির্দিষ্ট সময় (আজল) উপস্থিত না হওয়ার পূর্বে কোন ব্যক্তিই মৃত্যুমুখে পতিত হবে না। তাই মৃত্যুর সে সময় বা ক্ষণটিই হচ্ছে তার জীবনের পাহারাদার তুল্য।)- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ২৯৮

হযরত আলী (আ.) বলেছেন : ‘আপনজনের বিয়োগ-ব্যথায় শোক করেও মানুষ নিদ্রা যায়। কিন্তু সম্পদ হারালে ঘুমাতে পারে না।’ (অর্থাৎ মানুষের প্রবৃত্তি এই যে, নিজের সন্তান-সন্ততি নিহত বা মৃত্যুবরণ করলেও মানুষ সে ব্যাপারে ধৈর্যধারণ করে, কিন্তু সম্পদ অপহৃত বা হাতছাড়া হলে সে ধৈর্য রক্ষা করতে পারে না।)- নাহজুল বালাগা, উক্তি নং ২৯৯

(নিউজলেটার, নভেম্বর ১৯৯১)