সোমবার, ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

স্বার্থ রক্ষা না হলে সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাবে ইরান

পোস্ট হয়েছে: মে ১৭, ২০১৮ 

news-image

স্বার্থ রক্ষা না হলে ছয় বিশ্ব শক্তির সঙ্গে করা পরমাণু সমঝোতা থেকে ইরানও বেরিয়ে যাবে বলে আবারও পুনর্ব্যক্ত করেছে তেহরান। ইরানের সরকারি মুখপাত্র মোহাম্মাদ বাকের নোবাখত মঙ্গলবার তেহরানের এই অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, যদি প্রমাণিত হয় ২০১৫ সালের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় ইরানের উপকারের থেকে ক্ষতিই বেশি হচ্ছে তাহলে সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাবে তার দেশ।

এদিন নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে নোবাখত বলেন, `যদি আমাদের স্বার্থের প্রয়োজন দেখা দেয় এবং দেখা যায় যে পরমাণু সমঝোতা আমাদের কাছে উপকারের চেয়ে বেশি ক্ষতিকর তাহলে সমঝোতা থেকে আমরা বেরিয়ে যাব এবং ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণের কাজ পুনরায় শুরু করব। ইউরেনিয়াম ৪ শতাংশ থেকে ২০ শতাংশের অধিকে উন্নীতকরণে কাজ শুরু করব।’

মুখপাত্র বলেন, যুক্তরাষ্ট্র চেয়েছিল ইরানের বিরুদ্ধে ঐক্য গড়ে তুলতে। কিন্তু আন্তর্জাতিক এই চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ায় ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধেই একটি আন্তর্জাতিক ঐকমত্য তৈরি হয়েছে।

ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ায় বিশ্ব নেতা ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংগঠনের কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েন ট্রাম্প। পরামাণু সমেঝাতা থেকে তার প্রস্থানকে অনেকে ‘সর্বাপেক্ষা বোকামিপূর্ণ সিদ্ধান্ত’ বলে অভিহিত করেছন। ট্রাম্পের ওই ঘোষণা দেওয়ার পর ইরানও হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, চুক্তির স্বাক্ষরকারী অন্যান্য দেশ, বিশেষত ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলো তেহরানের স্বার্থ রক্ষার নিশ্চয়তা না দিতে পারলে দেশটি পুনরায় পরমাণু কর্মসূচি শুরু করবে। – তেহরান টাইমস।