রবিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

সম্পর্কের নতুন অধ্যায় রচনা করতে যাচ্ছে ইরান ও থাইল্যান্ড

পোস্ট হয়েছে: অক্টোবর ১০, ২০১৬ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান ও থাইল্যান্ড সম্পর্কের নতুন অধ্যায় রচনা করার কথা ঘোষণা করেছে। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে ২য় এশিয়া কো-অপারেশন ডায়ালগ বা এসিডি সম্মেলনের অবকাশে ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি ও থাই  প্রধানমন্ত্রী প্রাইয়ুত চান-ও-চা এক বৈঠকে এ কথা ঘোষণা করেন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি সাংবাদিকদের বলেন, “আজ আমরা রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্রে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বাড়ানোর বিষয় নিয়ে কথা বলেছি। তেহরান ও ব্যাংককের মধ্যে এ সম্পর্ক দু দেশের স্বার্থ রক্ষার পাশাপাশি আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে পরিপূরক হিসেবে কাজ করবে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, ইরান ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মাঝে থাইল্যান্ড অর্থনৈতিক সেতু হিসেবে কাজ করতে পারে। তেহরান ও ব্যাংককের মধ্যকার সহযোগিতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে দু দেশের বেসরকারি উদ্যোক্তাদের সক্রিয় ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। ইরান ও থাইল্যান্ডের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করার জন্য দু দেশের ব্যাংকিং চ্যানেল চালু করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। তিনি জানান, ইরান এবং থাইল্যান্ড চুক্তি ও প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে শিগগিরি দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য দ্বিগুণ করবে। বর্তমানে দু দেশের মধ্যে বার্ষিক ৭৯ কোটি ৪৫ লাখ ডলারের বাণিজ্য রয়েছে।

থাই প্রধানমন্ত্রীও তেহরান ও ব্যাংককের মধ্যে সম্পর্কের নতুন অধ্যায় রচনার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, “ইরানের সঙ্গে শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বৈজ্ঞানিক সম্পর্ক বাড়ানোর বিষয়ে তার সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। একইভাবে জোরদার গতিতে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্কও বাড়াবে দু দেশ।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার তিনটি দেশ সফরের শেষ পর্যায়ে প্রেসিডেন্ট রুহানি থাইল্যান্ড সফর করছেন।সূত্র: পার্সটুডে