রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

শরীরচর্চায় মুখরিত তেহরানের পার্ক

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ১, ২০১৮ 

news-image

তেহরানকে অনেকেই উদ্যান নগরী বলেন। ইরানের রাজধানীর প্রতি মহল্লায় রয়েছে ছোটবড় এক বা একাধিক পার্ক। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পার্কগুলো সবারই মন টানে। গরমের দিনের ভোরে পার্কগুলো মুখরিত হয়ে ওঠে শরীরচর্চাকারীদের তৎপরতায়। শীতকাল এমনকি ঘন তুষারপাতের সময়ও পার্কে অনেককে দেখা যায়। অবশ্য শীতের প্রথম তুষারপাতের দিনে বা রাতে পার্ক যেন মেতে ওঠে বরফের উৎসবে।

তেহরানের দক্ষিণ সাজমানে বারনামের পার্কে পারনিয়ান এমনি একটি পার্ক। ভোরে শরীরচর্চাকারীদের জন্য একটি স্থান নির্দিষ্ট করা আছে এখানে। ফার্সিতে লেখা আছে সে কথা।  শনি থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত একদল এখানে নিয়মিত শরীরচর্চা করেন। দলবদ্ধ এ শরীরচর্চা চলে এক ঘণ্টা। শরীরচর্চা শেষ হয় দলবদ্ধ দোয়ার মাধ্যমে। এখানে ব্যবহৃত ছবিগুলো পার্কে পারনিয়ান থেকে তোলা হয়েছে।

প্রাতঃ ব্যায়ামের স্থান – কথাটি লেখা আছে ফার্সিতে

এ ছাড়াও, পার্কে নিয়মিত আসেন অনেক স্বাস্থ্য সচেতন নারী-পুরুষ। তেহরানের প্রায় প্রতিটি পার্কেই অনেককাল ধরেই ব্যায়ামের যন্ত্রপাতি স্থাপন করেছে নগর কর্তৃপক্ষ। মজবুত এ সব যন্ত্রপাতি ব্যবহার করতে অনেকেই পার্কে আসেন।  যন্ত্রপাতিগুলো নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়। সকাল-সন্ধ্যাসহ দিনের প্রায় যে কোনো সময়ে দেখা যায় এ সব যন্ত্রের ব্যবহার করছেন কেউ না কেউ।

 

ভোরের পার্কে সাইকেল চালান কেউ কেউ

ভোরের পার্কে আসেন কেউ কেউ শুধু প্রাত: ভ্রমণ করতে। কেউ কেউ পার্কের তুলনামূলক নির্জনতার সুযোগ পুরোপুরি ব্যবহার করেন এবং সাইকেলও চালান। কোনো কোনো পার্কে  সাইকেল না চালানোর বিজ্ঞপ্তি ঝোলানো আছে। এ নিষেধাজ্ঞা সাধারণ ভাবে সকালে বলবৎ করা হয় না।  সাইকেল চালানোর সুবন্দোবস্তও আছে তেহরানের কোনো কোনো পার্কে। এ সুযোগের সদ্ব্যবহারের জন্য নিজের সাইকেল বয়ে নিয়ে যাওয়ার দরকার নেই। পার্কগুলোতেই সাইকেল ভাড়ায়ও পাওয়া যায়। এমনি একটি বিখ্যাত পার্ক হলো পার্কে চিৎগার। পার্সটুডে।

মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয় দলবদ্ধ এ প্রাতকালীন ব্যায়াম