শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনায় কড়া সমালোচনায় পোপ

পোস্ট হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৭ 

news-image

ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের নির্যাতনে কঠোর সমালোচনা করে বলেছেন, শুধু ধর্মবিশ্বাস ও সংস্কৃতির কারণে তাদের হত্যা করা হচ্ছে। পোপ বলেন, বিশ্বে কেউ রোহিঙ্গা মুসলমানদের চায় না, এজন্যে তাদের এক স্থান থেকে আরেক স্থানে আশ্রয়ের জন্যে ছুটতে হচ্ছে। কিন্তু তারা ভাল মানুষ। শান্তিপ্রিয়। তারা খ্রিস্টান নয়। তারা ভাল মানুষ। তারা আমাদের ভাই ও বোন। স্থানীয় সময় বুধবার ভ্যাটিক্যানের চার্চে সাপ্তাহিক সাধারণ বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

পোপ বলেন, আজ আমি আপনাদের সঙ্গে রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্যে প্রার্থনা করছি। আপনারাও রোহিঙ্গা ভাইবোনদের জন্যে প্রার্থনা করবেন। জাতিসংঘ গত সপ্তাহে রোহিঙ্গা মুসলমানদের হত্যা, ধর্ষণ ও তাদের বাড়ি ঘরে অগ্নিসংযোগ করার তথ্য দেওয়ার পর পোপ ফ্রান্সিস মিয়ানমারে এ ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীকে হত্যাযজ্ঞের কঠোর সমালোচনা করলেন।

এর আগেও জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর হত্যাযজ্ঞ চালানোর নিন্দা জানিয়ে তাকে মানবতা বিরোধী ও ক্ষুদ্রজাতিগোষ্ঠী নিধন হিসেবে বর্ণনা করে। জাতিসংঘের গণহত্যা প্রতিরোধ বিষয়ক বিশেষ দূত আদামা দিয়েং সম্প্রতি বলেছেন, রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরক্তিকর ও অগ্রহযোগ্য। গত সোমবার হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এক প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা মুসলিম নারী ও শিশুদের ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করে। দীর্ঘদিন ধরে উগ্র বৌদ্ধ সম্প্রদায় ও মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে রোহিঙ্গা হত্যাযজ্ঞ, ধর্ষণ ও নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে। মিয়ানমার রোহিঙ্গা মুসলমানদের নাগরিক স্বীকৃতি বাতিল করে দিয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্পদায় দক্ষিণ আফ্রিকায় সাবেক বর্ণবাদী শাসনের সময় কালো মানুষদের ওপর যে নির্যাতন চলছিল তার সঙ্গে রোহিঙ্গা নির্যাতনের তুলনা করছেন। প্রেসটিভি/বিবিসি