সোমবার, ১৪ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

রোহিঙ্গাদের রক্ষায় দায়িত্ব পালন করুন: মুসলিম বিশ্বের প্রতি ইরান

পোস্ট হয়েছে: সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি বলেছেন, মিয়ানমারের মজলুম মুসলমানদের সমস্যা সমাধানের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে তেহরান।

তিনি বলেন, চলতি ২০১৭ সালের শুরুতেও ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ জাতিসংঘ মহাসচিব এন্টোনিও গুতেরেসের কাছে চিঠি লিখে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের অনুরোধ জানিয়েছিলেন। এখনও রোহিঙ্গা মুসলমানদের সমস্যা সমাধানের বিষয়টি ইরানের কাছে গুরুত্ব পাচ্ছে।

বাহরাম কাসেমি আরও বলেছেন, “আমরা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো বিশেষকরে জাতিসংঘে রোহিঙ্গা ইস্যুটি উত্থাপনের চেষ্টা করছি। সব মিলিয়ে বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত স্পর্শকাতর। এটি এখন শুধু মুসলমান নয়, গোটা বিশ্বের মানুষ ও সরকারের কাছেই মানবিক ইস্যু হিসেবে রোহিঙ্গা গণহত্যা গুরুত্ব পাচ্ছে।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা এর আগে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা ওআইসিতেও পরিকল্পিত নৃশংসতার বিষয়ে মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্যবদ্ধ অবস্থান গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছিলাম। আমরা বলেছিলাম রোহিঙ্গাদের রক্ষা করা সব মুসলিম দেশের দায়িত্ব।”

রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইরানের কূটনৈতিক তৎপরতা সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যা-নির্যাতন বন্ধের উপায় নিয়ে তুরস্ক, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন এবং অন্য মুসলিম দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গেও তিনি  এ বিষয়ে কথা বলবেন।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধের উপায় তুলে ধরে বলেন, মুসলিম দেশগুলো যদি ঐক্যবদ্ধভাবে রোহিঙ্গা গণহত্যার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় তাহলে ঘাতকরা পিছু হটতে বাধ্য হবে। তিনি সব মুসলিম দেশকে এ বিষয়ে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

বাহরাম কাসেমি বলেন, ” ইরান রাখাইন রাজ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনতে বাস্তবসম্মত নীতি গ্রহণের জন্য মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের পথ পরিহার করতে বলছে।” ইরান বিশ্বের যে কোনো প্রান্তের মুসলমানদের অবস্থাকে বিশেষ গুরুত্ব দেয় বলে তিনি জানান।- পার্সটুডে।