সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

রোহিঙ্গাদের জন্য ইরানের ত্রাণবাহী দ্বিতীয় বিমান বাংলাদেশে যেতে প্রস্তুত

পোস্ট হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৭ 

news-image

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য ইরানের মানবিক ত্রাণবাহী দ্বিতীয় কার্গো বিমান প্রস্তুত করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের অনুমতির পর তা পাঠানো হবে বলে ইরানের রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে।

ইরানের রেড ক্রিসেন্টের প্রধান আমির মোহসেন জিয়ায়ী বুধবার জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য বাংলাদেশে এবার ৩০ টন ত্রাণসামগ্রী পাঠানো হবে। যার মধ্যে রয়েছে ৩০০ তাঁবু, ৫৫০০ কম্বল, ১০০০০ টিনজাত খাবার এবং এক টন ওষুধ ও চিকিৎসাসামগ্রী।

ইরানের সরকারি বার্তা সংস্থা ইরনাকে তিনি বলেন, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের সমস্যা সমাধানে ইরান ছাড়াও মুসলিম-অমুসলিম সব দেশের এগিয়ে আসা উচিত।

আমির মোহসেন জিয়ায়ী জানান, আন্তর্জাতিক রেডক্রসের সহায়তায় ইরানের পক্ষ থেকে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের জন্য শরণার্থী শিবির ও একটি অস্থায়ী হাসপাতাল স্থাপনের সর্বাত্মক চেষ্টা চালানো হচ্ছে। পাশাপাশি মিয়ানমারেও যাতে রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য ত্রাণ পাঠানো যায় সেজন্য সেদেশের সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য ইরানের প্রথম ত্রাণবাহী কার্গো বিমান বাংলাদেশে পৌঁছে। ইরানের উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইব্রাহিম রহিমপুরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ত্রাণ বিতরণের পাশাপাশি রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেছেন। প্রথম দফায় পাঠানো ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল তাঁবু, কম্বল, চা, চিনি, তেল, কাপড়চোপড়, ওষুধসহ ৯ ধরনের পণ্য সামগ্রী।

ইরানের রেড ক্রিসেন্টের কর্মকর্তা মোর্তেজা সালিমি ‌এর আগে জানিয়েছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা মুসলমানদের জন্য মোট ১৫০ টন সাহায্য পাঠানো হবে।- পার্সটুডে।