রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

রুহানির দ্বিতীয় জয়ের অন্তরালে

পোস্ট হয়েছে: মে ২২, ২০১৭ 

news-image

রাশিদ রিয়াজ: সারা ইরান রুহানির জয়ধ্বনিতে উত্তাল। দ্বিতীয়বারের মত নির্বাচনে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি মোট ভোটের ৫৭ ভাগ অর্থাৎ সাড়ে ২৩ মিলিয়ন ভোট পেয়েছেন। যেখানে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ইবরাহিমর রাইসি পেয়েছেন, সাড়ে ৩৮ ভাগ বা ১৫ দশমিক ৭ মিলিয়ন ভোট পান। দুজন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান এবং বাকি দুজন নগন্য ভোট পেয়েছেন।

ইরানির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিকে বিশ্বনেতারা অভিনন্দন জানাচ্ছেন। তার যুগোপযোগী সংস্কার ও নেতৃত্ব ইরানকে শুধু শক্তিশালী করেনি, দেশটির উপর পরাশক্তি দেশগুলো যে নিষেধাজ্ঞা ও অবরোধ আরোপ করে রেখেছিল তা থেকে মুক্তি দিয়েছে। টুইটারে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে রুহানি বলেছেন, তা এ বিজয় জনগণের এবং জনগণই প্রকৃত বিজয়ী। আমি তাদের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকব। এর আগে ২০১৩ সালে রুহানি ভোট পেয়েছিলেন ৫০ ভাগ। এবার তার ভোট ৭ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে।

রুহানির এ বিজয়ের পেছনে রয়েছে ইরানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বৃদ্ধি, অর্থনীতিতে গতিশীলতা নিয়ে আসা, পারমাণবিক শক্তি কর্মসূচির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার নিয়ে আন্তর্জাতিক বিশ্বের আস্থা অর্জন, বিদেশি বিনিয়োগ বিশেষ করে ভারত, চীন, জাপান, ইউরোপ, ল্যাটিন আমেরিকার দেশগুলোর সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্কে ভিত্তি গড়ে তোলার পাশাপাশি ইরানের আর্থিক খাত সহ বিভিন্ন খাতে ব্যাপক সংস্কার সাধন। এধরনের কাজ রুহানিকে ইরানি ভোটারদের সমর্থন আরো ব্যাপক করেছে। তার শাসনামলে চীন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ছাড়াও একাধিক পশ্চিমা দেশের নেতা ইরান সফর করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর ইরানের সঙ্গে পারমাণবিক চুক্তি নতুন করে পর্যালোচনা করার কথা বলেও শেষ পর্যন্ত তা থেকে ক্ষান্ত দিয়েছে দেশটি।