বৃহস্পতিবার, ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

English

রসায়নবিদ রাজির স্মরণে ইরানে ফার্মাসিউটিক্যাল দিবস উৎযাপন

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ২৭, ২০২০ 

news-image

পার্সিয়ান চিকিৎসক এবং দার্শনিক আবু বকর মোহাম্মাদ ইবন যাকারিয়া আল-রাজির স্মরণে ২৬ আগস্ট ইরানে ফার্মাসিউটিক্যাল দিবস উদযাপিত হয়েছে। এদিন তিনি জন্ম গ্রহণ করেন। তার সম্মানে জন্মদিবসে ফার্মাসিউটিক্যাল দিবস পালন করা হয়।

রাজি ৮৪১ খ্রিস্টাব্দে ইরানের তেহরানে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি চিকিৎসা বিদ্যা, আল-কেমি, পদার্থবিদ্যা এবং অন্যান্য বিষয়ের উপর ১৮৪ টিরও বেশি বই লিখেছেন। তিনি সালফিউরিক এসিড আবিষ্কার করেন। তিনি ইথানল উৎপাদন, বিশোধন, ও চিকিৎসায় এর ব্যবহার প্রক্রিয়া আবিষ্কার করেন। তিনি একজন বিখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ ছিলেন। তিনি বহু দেশ ভ্রমণ করেন।

তিনি বিশ্বের সেরা মনীষীদের একজন।একই সাথে তিনি চিকিৎসক, চিকিৎসাবিজ্ঞানী, দার্শনিক ও রসায়নবিদ হিসেবে খ্যাতিমান। তিনি ছিলেন তার সময়ের মুসলিম জগতের সর্বশ্রেষ্ঠ চিকিৎসক। জ্ঞানরাজ্যের অন্যান্য শাখাতেও তিনি অভিজ্ঞতা অর্জন করেন।

আল-রাজি রসায়ন শাস্ত্রে অনেক নতুন বিষয় প্রবর্তন করেন। এর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক চিহ্ন অন্যতম। তাকে বর্তমান রসায়ন শাস্ত্রের অন্যতম প্রবর্তক হিসেবে অভিহিত করা যায়। চিকিৎসাশাস্ত্রে তিনি বহু বই লিখেন। জ্যোতির্বিজ্ঞান ও জ্যামিতির ওপরও তিনি বই লিখেন। বল-বিজ্ঞানে ওজন সম্পর্কিত তার একটি বইয়ের খোঁজ পাওয়া যায়, যার নাম মিজান তাবিই। পদার্থ ও আলোকবিজ্ঞান সম্পর্কেও তিনি বই লিখেন, যার অনেকগুলেইি বিলুপ্ত।

আল-রাজির পুরো নাম আবু বকর মুহাম্মদ ইবনে জাকারিয়া আল-রাজি। তবে তিনি আল-রাজি বা আর-রাজি নামে বেশি পরিচিত। পশ্চিমা বিশ্বে তিনি জযধুবং বা জধংরং নামে পরিচিত। তার জন্ম পারস্যের (ইরান) রেই নগরে, যা বর্তমানে বৃহত্তর তেহরানের অংশ, ৮৬৫ সালে মতান্তরে ৮৬৪ সালে। মৃত্যু ৯২৫ সালে মতান্তরে ৯৩০ সালে। সূত্র: মেহর নিউজ এজেন্সি।