মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং, ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় সোনার খনি ইরানে

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ২৩, ২০১৭ 

news-image

মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় সোনার খনির অবস্থান ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এবং সেখান থেকে চলতি বছরের প্রথম চার মাসে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি সোনা উত্তোলন করা হয়েছে। এ খনি থেকে গত ২০ মার্চ হতে চার মাসে উত্তোলন করা হয়েছে এক লাখ ৪২ হাজার টন মূল্যবান ধাতু যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে সাড়ে তিনগুণ বেশি।পার্সটুডের খবর।

ইরানের আজারবাইজান প্রদেশের জারশুরান নামে এ খনি থেকে মোট ১১০ টন খাঁটি সোনা পাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হয়।

খনি কর্তৃপক্ষের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে- চলতি বছরের প্রথম চার মাসে ৪০ হাজার টন ধাতু উত্তোলন করার পরিকল্পনা ছিল কিন্তু এক লখ ৪২ টন উত্তোলন করা হয়েছে। এ খনি থেকে প্রতি বছরে ছয় টন খাঁটি সোনা উৎপাদন করা সম্ভব এবং এর ফলে ইরানে সোনার উৎপাদন দ্বিগুণ হবে। তাতে সামগ্রিকভাবে বিশ্বে স্বর্ণ উৎপাদনকারী দেশের তালিকায় ইরানের অবস্থান অনেক এগিয়ে যাবে।

২০১৪ সালে জারশুরান খনি থেকে সোনা উত্তোলনের কাজ শুরু হয় এবং তখন বছরে তিন টন সোনা, আড়াই টন রূপা ও এক টন মার্কারি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে উৎপাদন ক্ষমতা বাড়ানো হয়েছে এবং এখন প্রতিদিন ১০ কেজি খাঁটি সোনা উৎপাদন সম্ভব হচ্ছে।  ইরানের সরকারি তথ্য অনুসারে, দেশে মোট ১৫টি সোনার খনি রয়েছে যার মধ্যে ১২টি সক্রিয় খনি।