শনিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

বিশ্বকাপের পর বিদায় নেবেন ইরানি কোচ কুইরোজ

পোস্ট হয়েছে: মে ২৭, ২০১৮ 

news-image

কয়েক দিন পর শুরু হতে যাওয়া রাশিয়া বিশ্বকাপের পর ইরানের জাতীয় ফুটবল দলের কোচের পদ থেকে বিদায় নেবেন কার্লোস কুইরোজ। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে অপর কোনো দেশের নেতৃত্ব দিতে চান তিনি। তাই দেশটির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে আগ্রহী না বলে জানিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে একথা জানান সাবেক এই রিয়েল মাদ্রিদ কোচ।

কুইরোজ ২০১১ সাল থেকে ইরানের জাতীয় ফুটবল টিমের কোচের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। আগামী জানুয়ারিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়ান কাপ ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। আসন্ন এই ইভেন্টের আগ পর্যন্ত চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে তাকে প্রস্তাব দিয়েছিল ইরানের ফুটবল ফেডারেশন। কিন্তু ৬৫ বছর বয়সী কোচ কুইরোজ জানিয়েছেন, রাশিয়া বিশ্বকাপের পর সাত বছর ধরে পালন করে আসা কোচের দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াবেন তিনি। আসন্ন এই বিশ্বকাপে গ্রুপ বি তে মরক্কো, স্পেন এবং পর্তুগালের মুখোমুখি হবে কুইরোজের দল।

কুইরোজ বর্তমানে তুরস্কের ইস্তান্বুলে ইরানের ট্রেনিং ক্যাম্পে অবস্থান করছেন। সেখান থেকে টেলিফোনে বলেন, ‘‘এখন থেকে এক প্রায় এক বছর আগে আমরা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছি এবং এটা সত্য যে তারা (ইরান) আমিরাতের এশিয়ান কাপ পর্যন্ত আরও ছয়মাস দায়িত্ব পালনের প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু এটা আমার প্রত্যাশা পূরণ করে না।’’

কুইরোজ পরিবারের সঙ্গে বেশি বেশি সময় কাটানোর জন্য অবসরে যাওয়ার চিন্তাভাবনা করেছিলেন। কিন্তু এখন প্রথম ব্যক্তি হিসেবে বিশ্বকাপ ফাইনালের পাঁচ আসরে কোচের দায়িত্ব পালন করতে চান তিনি। কুইরোজের নেতৃত্বে ২০০২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। এরপর কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। এরপর তিনি দক্ষিণ কোরিয়া অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে পর্তুগালের নেতৃত্ব দেন। অতঃপর তারই নেতৃত্বে আসন্ন বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে ইরানি দল। এখন আগামী ২০২২ সালে কাতার বিশ্বকাপে আরেকটি দেশের নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী সাবেক এই রিয়েল মাদ্রিদ কোচ।

এব্যাপারে কুইরোজ বলেন, বিগত বছরগুলো ইরানে কাটানোর পর রাশিয়া বিশ্বকাপ শেষে আমার অবসরে যাওয়া সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু ভাবলাম পঞ্চম বারের মতো বিশ্বকাপে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন না করতে পারলে আমার জন্য তা অসন্তোষজনক হবে। আর দেখলাম আমার জন্য একক ইতিহাস তৈরি করার সুযোগও আছে। তা হলো- ফুটবলের ইতিহাসে একক ব্যক্তি হিসেবে বিশ্বকাপে পাঁচবার কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালনের। এটাই এখন আমার মূল লক্ষ্য ও চাওয়া-পাওয়া। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করানোর জন্য দুটি দেশের পক্ষ থেকে প্রস্তাব আছে বলে জানান তিনি। এরমধ্যে একটি আফ্রিকার দেশ, অপরটি এশিয়ার। সূত্র: তেহরান টাইমস।