শুক্রবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৩রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

বাঁচানো গেল না ইরানি চিতাবাঘটিকে

পোস্ট হয়েছে: ডিসেম্বর ২৪, ২০১৭ 

news-image

ইরানি চিতাবাঘ ‘আরেজু’। ইরানের গিলান প্রদেশের রুদসার এলাকায় ছিল তার বসবাস। গত ফেব্রুয়ারি মাসে আহত অবস্থায় সেখান থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল চিতাটিকে। অতঃপর অস্ত্রোপচার চালিয়ে সারিয়ে তোলা হয় তাকে, ফের অবমুক্ত করা হয় নিজ আবাসস্থল রুদসারে। কিন্তু অবশেষে বাঁচানো গেল না আরেজুকে। রুদসারের গভীর বনে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে শজারুর সঙ্গে লড়াইয়ে প্রাণ হারিয়েছে প্রাণিটি।

গিলানের রুদসার এলাকা থেকে উদ্ধারের পর ‘আরেজু’ নামেই সুপরিচিতি লাভ করে চিতাবাঘটি। সেখানে একটি ফাঁদে আটকা পড়ার পর তাকে উদ্ধার করে গত ৫ ফেব্রুয়ারি মেরুদণ্ডে জটিল সার্জারি করা হয়। এতে দ্রুত ভাল হয়ে ওঠে আরেজু।

সেসময় ৪ বছর বয়সী চিতাটিকে উদ্ধার করে তেহরানে নিয়ে আসা হয় এবং সেখানেই জটিল এই অস্ত্রোপচার চালানো হয়। বিস্ময়করভাবে এক সপ্তাহের মধ্যেই হাঁটাচলা করার সক্ষমতা ফিরে পায় সে। ঠিক এর ৮ মাস পর গত নভেম্বরে নিজ আবাসস্থলে অবমুক্ত করা হয় চিতাটিকে।

বনে ছেড়ে দেওয়ার আগে বাঘটির ঘাড়ের সাথে একটি বেল্টের ন্যায় ট্র্যাকিং ডিভাইস (অবস্থান শনাক্তকারী যন্ত্র) ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। ওই যন্ত্রটি ব্যবহার করে গত বৃহস্পতিবার বনের গভীর থেকে প্রাণিটির মরদেহ উদ্ধার করেছে রেঞ্জার্সরা। এসময় তার শরীরে শজারুর সঙ্গে লড়াইয়ের ক্ষত পাওয়া গেছে। তবে মানুষের সঙ্গে সংঘর্ষের কোনো লক্ষণ পাওয়া যায়নি।

ইরানি সংবাদ সংস্থা ইয়ং জার্নালিস্ট ক্লাবের (ওয়াইজেসি) তথ্যমতে, ময়নাতদন্ত ও প্রাণহানির আসল রহস্য উদঘাটনে চিতাবাঘটির মরদেহ গিলান প্রদেশের পরিবেশ অধিদপ্তরে নেওয়া হয়েছে।

সূত্র: মেহর নিউজ এজেন্সি।