শনিবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

বই পরিচিতি

পোস্ট হয়েছে: জুলাই ১৭, ২০১৮ 

বাংলার রুমী সৈয়দ আহমদুল হক
সম্পাদনা : সবিহ-উল আলম
প্রকাশক : আল্লামা রুমী সোসাইটি
রুহ আফজা কুটির, ১২৮ লালখান বাজার, চট্টগ্রাম
প্রকাশকাল : সেপ্টেম্বর ২০১৩
মূল্য : ৫০০ টাকা।

আলোচ্য গ্রন্থটি ‘বাংলার রুমী’ নামে খ্যাত মরহুম সৈয়দ আহমদুল হকের স্মারক জীবনী গ্রন্থ। সুফি মিজানুর রহমান, সৈয়দ রেজাউল করীম, সৈয়দ মাহমুদুল হক, ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ, নাজমাতুল আলম, ড. কে এম সাইফুল ইসলাম খান, ড মোহাম্মদ বাহাউদ্দিন প্রমুখ সাত সদস্য বিশিষ্ট সম্পাদনা পরিষদ সমন্বয়ে শিল্পী সবিহ-উল আলমের সুযোগ্য সম্পাদনায় গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়। সৈয়দ আহমদুল হক ছিলেন একজন অন্তর্দৃষ্টিসম্পন্ন সুফি-সাধক, লেখক, গবেষক ও প্রজ্ঞাবান মহামনীষী। ইরানের কবি মাওলানা জালালউদ্দীন রুমী (র.)-এর ভাবশিষ্য হিসেবে তিনি আজীবন রুমী সাধনা করেছেন। রুমীকে আত্মস্থ করেছেন। স্বজাতির মাঝে রুমীর মানবতাবাদী প্রেমদর্শন প্রচার করেছেন। সে লক্ষ্যে গঠন করেছেন আল্লামা রুমী সোসাইটি। তাঁর রুহ আফজা কুটির ছিল মরমি বৃক্ষ পরিচর্যার গ্রীন হাউসস্বরূপ। দূরদর্শী চিন্তাবিদ ও দার্শনিক হিসেবে তিনি বাংলা ভাষায় জালালউদ্দীন রুমী ও তাঁর কালজয়ী সৃষ্টি ‘মসনভী’ চর্চার মাধ্যমে এক প্রতিকৃত ও কিংবদন্তি মনীষী হিসেবে সুপরিচিত হয়ে ওঠেন। বিস্ময়কর প্রতিভাসম্পন্ন মরমি সাধক এই মহান ব্যক্তি স্বীয় যোগ্যতা, অপূর্ব দক্ষতা, অতুলনীয় ধীশক্তি ও মেধায় এবং বস্তুনিষ্ঠ গবেষণা আর অকৃত্রিম সাহিত্য সেবার মাধ্যমে একটি নিজস্ব ভূবন সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছেন। সেকারণেই তাঁকে ‘বাংলার রুমী’ বলা হয়। ‘মসনভী’র প্রতিটি কবিতার ছত্রের বিশ্লেষণ করতে গিয়ে যে তুলনামূলক আলোচনা ও গবেষণা তিনি চালিয়েছেন তাতে নিঃসন্দেহে তাঁর বহুমুখী প্রতিভা, অগাধ পাণ্ডিত্য আর অধ্যয়নের গভীরতার পরিচয় পাওয়া যায়। আজীবন সাধক সৈয়দ আহমদুল হক তাঁর সাধনার পাশাপাশি সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন দায়িত্বপূর্ণ পদ সফলতার সাথে পরিচালনা করেন।
উক্ত স্মারক জীবনী গ্রন্থে সৈয়দ আহমদুল হক এর সংক্ষিপ্ত জীবনালেখ্য, তাঁর রচিত সাতটি প্রবন্ধের সাথে আরো ৪০ জন লেখকের লেখা প্রকাশিত হয়েছে।
বইটি বাংলার রুমী সৈয়দ আহমদুল হককে জানতে বুঝতে ও বাংলা ভাষায় রুমী গবেষণায় সহায়ক হবে বলে আশা রাখি।
□ আমিন আল আসাদ