বৃহস্পতিবার, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

বই পরিচিতি

পোস্ট হয়েছে: জুলাই ২৫, ২০১৯ 

ছড়াসমগ্র
রচনা : আতিক হেলাল
প্রকাশক : কুষ্টিয়া প্রকাশন
আই/২৫, ব্লক-ই, কাজী নজরুল ইসলাম রোড, মোহাম্মদপুর,
ফোন- ০১৮৩০১০০১০০
প্রচ্ছদ : সাইফ আলী
প্রকাশকাল : আগষ্ট-২০১৮
মূল্য : ৩০০ টাকা।
নব্বই দশকের তুখোর ছড়াকার কবি আতিক হেলাল। বাংলা ছড়া সাহিত্যে স্ব-মহিমায় একজন শক্তিমান ছড়াকার হিসেবে তিনি সুপ্রতিষ্ঠিত। একাধারে তিনি সাংবাদিক, সম্পাদক এবং গবেষকও। জাতীয় ছড়া সাহিত্যে বিকাশের আন্দোলনে তাঁর যেমন প্রত্যক্ষ পরোক্ষ ভূমিকা রয়েছে তেমনি রয়েছে সাহিত্য সাংস্কৃতিক অঙ্গনে শুভবুদ্ধির উদয় এবং শুভচিন্তা বিকাশের কল্যাণকর চেতনা। তাঁর ছড়াগুলো নৈতিক ও সামাজিক ন্যয়বিচারের পক্ষে তীব্র ও ক্ষুরধারতারপর তা ছড়িয়ে পড়ে সর্বজনীনতার অবয়ব নিয়ে। দেশ, জাতি, ধর্ম, ইতিহাস, নৈতিক মূল্যবোধ, শিশুতোষ বিষয় সহ আন্তর্জাতিক বিষয় আশয় নিয়েও তিনি ছড়া লিখে থাকেন।
আলোচ্য ছড়াসমগ্রটি প্রকাশিত হয়েছে তাঁর বাছাই করা প্রকাশিত অপ্রকাশিত কিছু ছড়া নিয়ে। জাতীয় কবি নজরুলকে নিয়ে তাঁর একটি ছড়া প্রকাশিত হয়েছে সেটি হলো ‘নজরুল মিশে আছে কবিতাও ছন্দতে/জীবনের বাঁকে বাঁকে ভালো আর মন্দতে// নজরুল মিশে আছে কথা সুর সংগীতে/বিদ্রোহ বিপ্লবে আছে নানা ভঙ্গিতে’। আমাদের জাতীয় জীবনে অমর একুশে ও মাতৃভাষা জড়িয়ে আছে মজবুতভাবে। সেটাই তিনি ছড়ায় বলার চেষ্টা করেছেন, ‘মায়ের ভাষা প্রাণের চেয়ে প্রিয় আমার কাছে/এই ভাষাতে জড়িয়ে আমার ভাইয়ের স্মৃতি আছে//রক্ত দিয়ে কথা বলার এই অধিকার কেনা/বাংলা ভাষার বর্ণ সকল তাইতো বড়ই চেনা’। তেমনি কারাবালা ও ইমাম হোসাইন জড়িয়ে আছে আমাদের ঈমানী চেতনার সাথে। সেটিও স্পর্শ করেছে তাঁর ছড়ায়। ‘আশুরার চেতনা/ইমামের খুন ছাড়া বিস্তার পেত না// নবীজির নাতি/তবু পানি পায় না সে ফেটে যায় ছাতি//এজিদের তোপে/উম্মার জন্য সে দেয় প্রাণ সঁপে//কিন্তু সে কথা/ মুসলিম ভুলে যায় ভাবে যথাতথা// আতিক হেলালের কবিতায় আমাদের জাতীয় জীবনের চিত্র যেমন প্রকাশ পায় তেমনি প্রকাশ পায় আমাদের ধর্মসংস্কৃতির পরিচিতিটিও। আমাদের বৃহত্তর উৎসব ঈদ নিয়ে তাই তিনি লিখেন, ‘ঈদের দিনে তোমরা খাবে মাংস রুটি পোলাও/ওদের তখন জুটবে না যে খাদ্য একতোলাও//তোমরা যখন সাজবে সবাই নুতন জামা কাপড়ে/ওরা তখন থাকবে পথে বস্ত্র কিছুই না পড়ে’ কিংবা ‘বারো মাসে দুইবার দুই খুশির ঈদে/কারো বাড়ে যন্ত্রণা বাড়ে কারো খিদে//দাম বাড়ে ঘাম বাড়ে কেউ থাকে জিদে/খাদ্য মজুত করে কেউ থাকে নিদে’। এভাবেই এগোয় আতিক হেলালের প্রতিবাদের ভাষা।
বাংলাদেশের ছড়া সাহিত্যের ইতিহাসে আতিক হেলাল স্বমহিমায় উৎরে যাবেন একথা আমরা নির্দ্বিধায় বলতে পারি। তাঁর ১৬০ পৃষ্ঠার এ ছড়াসমগ্রে রয়েছে তাঁর আরো বিখ্যাত ছড়া। উল্লেখ্য যে, ছড়াকার কবি আতিক হেলাল কঠিন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দেশের বাইরে যান চিকিৎসার জন্য। তাঁর ওপেন হার্ট সার্জারি হয়। অসুস্থতার এই কঠিন সময়ে তাঁর চিকিৎসা ব্যয়ভার বহনার্থে বইটি প্রকাশিত হয়। আমরা বইটির বহুল প্রচার ও পঠন কামনা করছি।
□ আমিন আল ্আসাদ