মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৫ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ফিলিস্তিনের ব্যাপারে মুসলিম বিশ্বে আশা জেগেছে: রুহানি

পোস্ট হয়েছে: ডিসেম্বর ১৪, ২০১৭ 

news-image

জেরুজালেম আল-কুদসকে কেন্দ্র করে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা বা ওআইসি’র জরুরি শীর্ষ সম্মেলন ডাকায় তুরস্ককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। তিনি বলেছেন, এই সম্মেলন ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে মুসলিম বিশ্বে আশার সঞ্চার করেছে।

তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত শীর্ষ সম্মেলন শেষে বুধবার রাতে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের সঙ্গে এক বৈঠকে একথা বলেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। ওই সম্মেলন থেকে পূর্ব জেরুজালেম আল-কুদসকে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী ঘোষণা করা হয়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষ থেকে জেরুজালেমকে ইহুদিবাদী ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার কথা উল্লেখ করে রুহানি বলেন, ওআইসি’র শীর্ষ সম্মেলন থেকে আজ যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে মুসলিম দেশগুলোকে সে ব্যাপারে কঠোর অবস্থান নিতে হবে। ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, মুসলিম দেশগুলো কঠোর অবস্থান নিলে মার্কিন সরকার তার সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে পারবে না।

এরদোগানের সঙ্গে বৈঠকে প্রেসিডেন্ট রুহানি আরো বলেন, মুসলিম বিশ্বের বিরুদ্ধে আমেরিকা ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের ষড়যন্ত্র চলছে। কিন্তু আশার কথা হচ্ছে, বিশ্বের সব দেশের মুসলমানরা ফিলিস্তিনি ভূমি রক্ষায় নিজেদের সমর্থন ঘোষণা করে সে ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে।

সাক্ষাতে ইস্তাম্বুল সম্মেলনে বেশিরভাগ মুসলিম দেশের সরকার বা রাষ্ট্রপ্রধানরা উপস্থিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, এই উপস্থিতি ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে মুসলিম বিশ্বের ঐক্যমত্য ফুটিয়ে তুলেছে। ফিলিস্তিনিদের ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ের ক্ষেত্রে এই ঐকমত্য কাজে লাগবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।ইস্তাম্বুল সম্মেলন শেষে বুধবার রাতেই প্রেসিডেন্ট রুহানি তেহরানে ফিরে যান। -পার্সটুডে