শনিবার, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং, ২রা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

English

পাঁচজন বিদেশি পর্যটক পাঠালে একটি বিমানটিকিট ফ্রি

পোস্ট হয়েছে: নভেম্বর ২০, ২০১৭ 

news-image

বিদেশি পর্যটক আকৃষ্ট করতে দেশের বাইরে বসবাসরত প্রবাসী ইরানিদের কাজে লাগানোর পরিকল্পনা করছে ইরান। এজন্য একটি প্রকল্প নিয়ে কাজ শুরু করেছেন দেশটির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা। দেশে বেশি বেশি বিদেশি পর্যটক আকৃষ্টের ক্ষেত্রে প্রবাসীদের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা শুরু করেছেন তারা।

গত সপ্তাহে ইরানের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, হস্তশিল্প ও পর্যটন সংস্থার (আইসিএইচএইচটিও) পর্যটন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের মধ্যে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইরানে বিদেশি পর্যটক আকৃষ্ট করতে প্রবাসীদের সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

বৈঠকে আইসিএইচএইচটিও এর পর্যটনবিষয়ক ডিপুটি মোহাম্মাদ মোহেব-খোদায়ি বিদেশি পর্যটক আকৃষ্ট করতে একটি ধারণা পেশ করেন, যেখানে বলা হয়েছে বিদেশিদের নিজের দেশে ভ্রমণে উৎসাহিত করতে দেশের বাইরে বসবাসরত ইরানিদের জন্য ইনসেনটিভ ঘোষণা করতে হবে।

তিনি বলেন, ‘এই জনসংখ্যা (বিদেশে বসবাসরত ইরানিরা) ইরানের পর্যটন বিকাশে মার্কেটিংয়ের কাজ করতে পারবেন এবং এক্ষেত্রে তারা প্রতি পাঁচ জন বিদেশি পর্যটক দেশে পাঠানোর জন্য ইরানে যাওয়ার একটি এয়ার টিকিট ফ্রি পাবেন।’

এই প্রকল্পের তহবিল সরবরাহে এই কর্মকর্তা একটি প্রস্তাবও দিয়েছেন। যেখানে তিনি বলেছেন, ফ্রি টিকিটের অর্ধেক মূল্য সরবরাহ করবে এয়ারলাইন্সগুলো এবং বাকি অর্ধেক সরবরাহ করবে ট্রাভেল এজেন্সিগুলো ও ইরানের বিভিন্ন প্রদেশে থাকা সংশ্লিষ্ট হোটেলগুলো।

তিনি বলেন, প্রাদেশিক কর্মকর্তাদের সীমান্ত এলাকায় বসবাসরত লোকজনকে চিহ্নিতকরণের কাজ করতে হবে। কেননা, এই পরিকল্পনা হস্তশিল্পের পণ্য রপ্তানি ও পর্যটনের বিকাশে সাহায্য করতে পারে।

যদিও মোহেব-খোদায়ি এও উল্লেখ করেছেন, এই প্রকল্পে সরকারের সহায়তা প্রয়োজন। প্রকল্পটি বেসরকারি খাতের ওপর অত্যন্ত নির্ভরশীল। তবে প্রকল্প বাস্তবায়নে কলাকৌশল সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেননি এই কর্মকর্তা।

ইরানি প্রবাসীবিষয়ক ডিপুটি আলি আসগার জানান, পাঁচ মহাদেশে ৫০ লাখের অধিক ইরানি বসবাস করছেন। তারা আইসিএইচএইচটিও এর জন্য বিশাল সুযোগ করে দিতে পারেন। তবে এই প্রকল্পের প্রক্রিয়া সুনির্দিষ্ট হওয়া প্রয়োজন।

সূত্র: ফিনানসিয়াল ট্রিবিউন।