রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করা হলে অকল্পনীয় জবাব দেয়া হবে’

পোস্ট হয়েছে: জুন ২০, ২০১৬ 

news-image

ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা কোনোভাবে লঙ্ঘন করা হলে এর জন্য কঠিন জবাব দেয়া হবে বলে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের সংসদ সদস্যরা প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেছেন। আমেরিকা যদি পরমাণু সমঝোতা ছিঁড়ে ফেলে তাহলে আমরা তাতে আগুন ধরিয়ে দেব বলে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী হুঁশিয়ারি দেয়ার পর দেশটির সংসদ নেতারা এ সতর্কবাণী উচ্চারণ করলেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা পরমাণু সমঝোতাকে ছিঁড়ে ফেলার যে হুমকি দিয়েছেন সে ব্যাপারে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। ইরানের সংসদের ২৩৭ জন সদস্য আজ (রোববার) এক চিঠির মাধ্যমে সর্বোচ্চ নেতার বক্তব্যের প্রতি তাদের দৃঢ় সমর্থনের কথা ব্যক্ত করেছেন। চিঠিতে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিপরীত পক্ষ যদি সমঝোতা লঙ্ঘন করে তবে আমরা তাদেরকে এমন শিক্ষা দেব যে, এর জন্য তারা অনুশোচনা করবে।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের পরমাণু সমঝোতার সমালোচনা করে বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ওই সমঝোতা পর্যালোচনা করে দেখবেন এবং প্রয়োজনে বিষয়টি নিয়ে আবার আলোচনা শুরু করবেন।

চলতি সপ্তাহের শুরুতে সর্বোচ্চ নেতা আলী খামেনেয়ী এক সমাবেশে বলেছিলেন, ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরান প্রথমেই পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করবে না। কারণ কোনো প্রতিশ্রুতির ওপর আস্থা এবং বিশ্বাস রাখা একটি কোরআনের নির্দেশ। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের কোনো কোনো প্রার্থী ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যকার পরমাণু সমঝোতা বাতিল করবেন বলে যে হুমকি দিচ্ছেন সে বিষয়ে সর্বোচ্চ নেতা বলেন,“আমরা পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করব না কিন্তু বিপরীত পক্ষ তা ছিঁড়ে ফেললে আমরা এ সমঝোতা পুড়িয়ে দেব।”

এছাড়া, ইরানের কৌশলগত পরমাণু শিল্পের সংরক্ষণ এবং উন্নয়নের ওপরও সংসদ সদস্যরা তাদের বিবৃতিতে জোর দিয়েছেন। তারা আরো বলেন, কোরআনের শিক্ষা অনুযায়ী, সমঝোতার ধারার আওতায় যতদিন বিপরীত পক্ষ তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করবে ইরানও ততদিন তা মেনে চলবে। সুত্র: পার্স টুডে