রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

English

নানা ভাষায় নানা সুরে ভাষাশহীদদের স্মরণ

পোস্ট হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮ 

news-image

বিশ্বে সাড়ে ছয় হাজার থেকে সাত হাজার ভাষা রয়েছে। এসব ভাষা নানা কারণে প্রতিনিয়ত বিলুপ্ত হচ্ছে। মাতৃভাষা রক্ষার মাধ্যমে কোনো একটি জনগোষ্ঠীর সভ্যতা, কৃষ্টি, সংগ্রামও রক্ষা পায়। বিশ্বজুড়ে মাতৃভাষা রক্ষায় বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশ অনুসরণীয় হয়ে উঠতে পারে। বুধবার বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ‘বিশ্বের সব মাতৃভাষা রক্ষা করবে বাংলাদেশ’ শীর্ষক শিরোনামে শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত অনুষ্ঠানে অতিথিরা এ কথা বলেন। ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকরা অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের কর্মকর্তা ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা গান, নৃত্য ও কবিতা পরিবেশন করে। এর আগে শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর নেতৃত্বে দেশি ও বিদেশি অতিথিরা শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

অনুষ্ঠানের শুরুতে লিয়াকত আলী লাকী বলেন, ‘মাতৃভাষা রক্ষার দাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে আমাদের সূর্য সন্তানরা শহীদ হয়েছেন। এটি শুধু দুঃখের বিষয় নয়, একই সঙ্গে গৌরবেরও। আমরা সারা দুনিয়ার মাতৃভাষা রক্ষার বিষয়ে উদাহরণ তৈরি করেছি।’ অনুষ্ঠানে ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত ভিসেন্ত ভিবেনসিও তি বানদিলো তাঁর দেশে ১০০-এর ওপর ভাষা রয়েছে উল্লেখ করে ফিলিপিনো ভাষায় একটি কবিতা আবৃত্তি করে শোনান। ডেনমার্কের  রাষ্ট্রদূত মিকাইল এইচ উইনথার ঢাকা নিয়ে ইংরেজি ভাষায় নিজের লেখা একটি গান গেয়ে শোনান। নেপালের রাষ্ট্রদূত থান বাহাদুর ওলি নিজের লেখা বাংলা কবিতা পড়ে শোনান। অনুষ্ঠানে ইরানের কালচারাল সেন্টারের শিল্পীরা ইরানি ভাষায় গান গেয়ে শোনান। ইন্দোনেশিয়ার একটি দল অনুষ্ঠানে নৃত্য পরিবেশন করে। অনুষ্ঠানের শুরুতে দেশি ও বিদেশি অতিথিরা ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটি গান। অনুষ্ঠানে ফ্রান্স, ভারত, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এ ছাড়া মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে লিয়াকত আলী লাকীর ভাবনায়, ইয়াসমিন আলীর সংগীত পরিচালনায় এবং সৈয়দা সায়লা আহমেদের নৃত্য পরিচালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশের অতিথিরা অংশ নেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন সৌদি আরব, মরক্কো, শ্রীলঙ্কা, নেদারল্যান্ডস, আফগানিস্তান, ফিজি, দক্ষিণ কোরিয়া, নাইজেরিয়া, মালদ্বীপ, মোজাম্বিক, অস্ট্রেলিয়া, মিয়ানমার, নেপাল, মেক্সিকো, ভুটান, সিঙ্গাপুর, ভারত, কলোম্বিয়া, জাপান, ব্রুনেই, মিসর, ভিয়েতনাম, রাশিয়া, মঙ্গোলিয়া, ইউক্রেন, সুইজারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি, ব্রাজিল, পাকিস্তান, পূর্ব তিমুর ও ইতালির নাগরিকরা।