রবিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলী শামখানির সাক্ষাৎ

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ২৮, ২০১৬ 

news-image

ভারত সফররত ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি নয়াদিল্লিতে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সাক্ষাতে শামখানি বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্যের চলমান সংকট সমাধান ও সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে ভারত ও ইরান যৌথ ভূমিকা রাখতে পারে।

শুক্রবার বিকেলে নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত সাক্ষাতে শামখানি বলেন, “বিভিন্ন ইস্যুতে ইরান ও ভারতের গঠনমূলক ভূমিকা ও স্বাধীন নীতি-অবস্থানের কারণে দেশ দু’টি আঞ্চলিক বিরোধ নিরসন ও তাকফিরি সন্ত্রাসবাদ প্রতিহত করতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারে।”

তিনি কিছু সুনির্দিষ্ট আঞ্চলিক দেশের সমালোচনা করে বলেন, এসব দেশ তাকফিরি মতবাদকে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে দায়েশের মতো উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীকে হৃষ্টপুষ্ট করছে। ভারতের মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর যাতে দায়েশ বা আইএসআইএল প্রভাব বিস্তার করতে না পারে সেজন্য তেহরান ও নয়াদিল্লি সহযোগিতা করতে পারে বলেও অভিমত প্রকাশ করেন শামখানি।

তৃতীয় কোনো পক্ষ ভারত ও ইরানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে ফাটল ধরাতে সক্ষম নয় বলেও মন্তব্য করেন ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব। তিনি বলেন, সব সময় দু’দেশের মধ্যকার সহযোগিতার লক্ষ্য ছিল আঞ্চলিক নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়ন।

ভারতের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাতের লক্ষ্যে আলী শামখানি দু’দিনের সরকারি সফরে শুক্রবার নয়াদিল্লি পৌঁছান। পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের জের ধরে তেহরান ও নয়াদিল্লির মধ্যে রাজনৈতিক, নিরাপত্তা, প্রতিরক্ষা ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদার করা হবে শামখানির এ সফরের মূল উদ্দেশ্য।

সূত্র: পার্সটুডে