মঙ্গলবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

নতুন করে `রুবাইয়াৎ-ই-ওমর খৈয়াম’

পোস্ট হয়েছে: নভেম্বর ১০, ২০১৫ 

news-image

রুবাইয়াৎ-ই-ওমর খৈয়াম-এর ভূমিকায় কাজী নজরুল ইসলাম লিখেছেন: ‘আমি ওমরের রুবাইয়াৎ বলে প্রচলিত প্রায় এক হাজার রুবাই থেকেই কিঞ্চিতোধিক দুশ’ রুবাই বেছে নিয়েছি এবং তা ফারসি ভাষার রুবাইয়াৎ থেকে। কারণ, আমার বিবেচনায় এইগুলি ছাড়া বাকি রুবাই ওমরের প্রকাশভঙ্গি বা স্টাইলের সঙ্গে একেবারে মিশ খায় না। আমি আমার ওস্তাদি দেখাতে গিয়ে ওমর খৈয়ামের ভাব বা স্টাইলকে বিকৃত করিনি, অবশ্য আমার সাধ্যমতো।…ওমরের রুবাইয়াতের সবচেয়ে বড় জিনিস ওর প্রকাশের ভঙ্গি বা ঢং। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি ওমরের সেই ঢঙটির মর্যাদা রাখতে, তার প্রকাশভঙ্গি যতটা পারি কায়দায় আনতে।’

রুবাইয়াৎ-ই-ওমর খৈয়াম সচিত্র প্রথম সংস্করণের চিত্রায়ণ করেন খালেদ চৌধুরী। এই বইয়ের ভূমিকায় সৈয়দ মুজতবা আলী লিখেছিলেন, ‘…ওমরই ওমরের সর্বশ্রেষ্ঠ মল্লিনাথ এবং কাজীর অনুবাদ সকল অনুবাদের কাজী।’

নতুন প্রজন্মের সঙ্গে জাতীয় কবির প্রতিভার পরিচয় করিয়ে দিতে নতুনভাবে ঐতিহাসিক বইটি প্রকাশিত হয়েছে। সোমবার তেজগাঁওয়ের চ্যানেল আই স্টুডিওতে বইটির প্রকাশনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ইকরাম আহমেদ, কবির নাতি কাজী অনির্বাণ, নাতনি কাজী অনিন্দিতা ও খিলখিল কাজী, প্রকাশক ইনামুল হক খান, প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মুকিত মজুমদার, চ্যানেল আইয়ের পরিচালক জহির উদ্দিন মাহমুদ। উপস্থিত ছিলেন শাহীন সামাদ, ফাতেমাতুজজোহরা, কেকা ফেরদৌসী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে রুবাইয়াৎ-ই-ওমর খৈয়াম থেকে আবৃত্তি করেন শিমুল মুস্তাফা ও শাহরিয়ার নাজিম জয়। শেষে নজরুল পরিবারের তিন প্রতিনিধিকে নিয়ে নজরুলসংগীতশিল্পীরা খালি কণ্ঠে পরিবেশন করেন নজরুলের ‘মোরা ঝঞ্ঝার মত উদ্দাম’ গানটি।

বইটির আধুনিক পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণ করেছেন কাজী অনির্বাণ।পরিবেশন করছে লায়নস ক্লাব অব ঢাকা অনন্ত।

সূত্র: প্রথম আলো ।