বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

নওরুজের বিদায়ে ইরানে ‘প্রকৃতি দিবস’ উদযাপন

পোস্ট হয়েছে: এপ্রিল ৪, ২০১৯ 

news-image

ফারসি নববর্ষ নওরুজকে উৎসবমুখর পরিবেশে বিদায় জানালেন ইরানিরা। ২১ মার্চ নতুন বছর শুরু হওয়ার পর দেশটিতে দীর্ঘ ছুটি শেষ হয় ২ এপ্রিল। এদিন  পিকনিক ও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বাসাবাড়ির বাইরে সময় কাটানোর মধ্য দিয়ে নওরুজের ছুটি শেষ করলেন তারা। দিনটি ইরানিরা ‘জাতীয় প্রকৃতি দিবস’ হিসেবে উদযাপন করে থাকেন।

প্রকৃতিকে উপভোগ করার এই জাতীয় দিবসটি স্থানীয়ভাবে ‘সিজদাহ বেদার’ হিসেবে পরিচিত। প্রতি বছরে ফারসি বছরের ১৩ ফারভারদিন নওরুজের বিদায়  উদযাপন করা হয়।  সাধারণত দিনটি পড়ে ২ এপ্রিল। তবে লিপ ইয়ারের বছর ১৩ ফারভারদিন পড়ে ১ এপ্রিল।  

প্রকৃতির সাথে মানবজাতির যে অপরূপ বন্ধুত্ব রয়েছে তা ছড়িয়ে দিতে ঐতিহ্যগতভাবেই দিবসটি দেশব্যাপী উদযাপন করা হয়। প্রকৃতি দিবসে যেসব প্রথাগত অনুষ্ঠান পালন করা হয় তারমধ্যে রয়েছে বীজ থেকে বিশেষ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সবুজ উদ্ভিদের অঙ্কুরোদগম ঘটানো। এই প্রথাকে ফারসিতে ‘সাবজেহ’ বলা হয়।  মূলত এর মধ্যমে সৌভাগ্যকে ফিরিয়ে আনতে প্রকৃতির কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টা করা হয়।

ইরানের তরুণরা বিশেষত মেয়েদের মাঝে এদিন ঘাসপাতার শাখায় গিঁরা দেওয়ার এক বিশেষ প্রথা রয়েছে। মেয়েরা গাছপালার পাতা একত্রে বেঁধে তা পানিতে ছুড়ে ফেলে। এটা তাদের কাছে পুরো বছর সত্যকে নিয়ে আসবে বলে আশা ও আকাঙ্ক্ষা পোষণ করে। এর মাধ্যমে তারা ভালো জীবনসঙ্গী বা স্বামী খুঁজে পাবার প্রত্যাশা করেন।

প্রতি বছর ফারসি বছর ২১ মার্চ শুরু হয়। আর লিপ ইয়ারের বছর শুরু হয় ২০ মার্চ। নতুন বছরে ভালো কিছু অর্জনের প্রস্তুতি নিতে টানা ১৩ দিনের দীর্ঘ ছুটি উপভোগ করে দেশটির জনগণ। সূত্র: মেহর নিউজ এজেন্সি।