রবিবার, ৩রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

English

ধর্মীয় পর্যটন সম্প্রসারণ চায় তেহরান-ইসলামাবাদ

পোস্ট হয়েছে: জুন ৫, ২০২২ 

news-image

ধর্মীয় পর্যটন বাড়াতে আলোচনা শুরু করেছে ইরান ও পাকিস্তান। এনিয়ে একটি চুক্তি করতে যাচ্ছে প্রতিবেশী মুসলিম দুই দেশ।পাকিস্তানি মিডিয়ার খবরে বলা হয়, পাকিস্তানের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী মুফতি আব্দুল শাকূর ধর্মীয় পর্যটন সম্প্রসারণের জন্য ‘জিয়ারাত নীতি’ নামে একটি খসড়া চুক্তি চূড়ান্ত করতে ইরান সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের প্রতিবেদনে বলা হয়, “অনেক লোক আছে যারা প্রতি বছর ইরানে অবস্থিত পবিত্র ধর্মীয় ব্যক্তিত্বদের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানায়। এই বিষয়ে পাকিস্তান সরকার দুই ভ্রাতৃপ্রতিম দেশের মধ্যে ধর্মীয় পর্যটন বাড়ানোর লক্ষ্যে ‘জিয়ারাত নীতি’ নামে একটি খসড়া প্রেরণ করেছিল। কিন্তু এটি এখনও মুলতুবি রয়েছে।’’ইরানের ইসলামি সংস্কৃতি ও সম্পর্ক সংস্থার (আইসিআরও) উপ পরিচালক হোসেইন রুজবেহের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দলের সাথে আলাপকালে আবদুল শাকুর এসব কথা বলেন। তিনি জানান, ওই নীতির অধীনে কোয়েটা ও তাফতানে অবস্থানকালে ধর্মীয় তীর্থযাত্রীদের সুবিধায় পাকিস্তান হাউসসহ ইরানে অফিস স্থাপনের প্রস্তাব করা হয়েছে।রুজবেহ বলেন, ইরানের পররাষ্ট্রনীতির মূল ভিত্তি প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখা।তিনি দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান ধর্মীয় সম্প্রীতি ও অন্যান্য সাধারণ বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য ইরানে অনুষ্ঠিতব্য আসন্ন সম্মেলনে যোগদানের জন্য মন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান। সূত্র: তেহরান টাইমস।