রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

দ. এশিয়ায় ভূমিকম্প: পাকিস্তানে নিহত ২২৮, আফগান ৬৩ জন

পোস্ট হয়েছে: অক্টোবর ২৭, ২০১৫ 

news-image

পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে ৭.৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৯১ জনে দাঁড়িয়েছে। গতকাল (সোমবার) বাংলাদেশ সময় বেলা তিনটার দিকে এ ভূমিকম্প সংঘটিত হয়। ভারতের কোথাও কোথাও ভূমিকম্প অনুভূত হলেও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় নি।

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ, লাহোর ও পেশোয়ারসহ বিভিন্ন স্থানে গতকালের ভূমিকম্পে নিহত হয়েছে অন্তত ২২৮ জন। এছাড়া, ১,৮০০ মানুষ আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ভূমিকম্পে বহু ঘর-বাড়ি ও ভবন ধসে পড়েছে। হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। এইরমধ্যে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়েছে তবে পার্বত্যাঞ্চলে তুষারপাত ও ব্যাপক ঠাণ্ডার কারণে তা ব্যাহত হচ্ছে। পাহাড়ি অঞ্চলে কয়েক হাজার পর্যটক আটকা পড়েছে। সামরিক বাহিনী ও বেসামরিক প্রশাসন থেকে হেলিকপ্টার নিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। বহু মানুষ প্রচণ্ড শীতের মধ্যে খোলা আকাশের নীচে রাত কাটাতে বাধ্য হয়েছে। ভূমিকম্পের পর অন্তত সাত দফা আফটার শক হয়েছে; এর মধ্যে একটির সর্বোচ্চ মাত্রা ছিল ৪.৮।

আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের মধ্যে ৬টি প্রদেশে ভূমিকম্প হয়েছে এবং এতে মারা গেছে অন্তত ৬৩ জন। একটি বালিকা বিদ্যালয়ে ভূমিকম্প আতংকে পদদলিত হয়ে ১২ ছাত্রী নিহত হয়। ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি প্রদেশে তালেবানদের নিয়ন্ত্রণ থাকায় উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা ব্যাহত হবে বলে আশংকা করা হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত বহু এলাকায় বিদ্যুৎ ও টেলিফোন লাইন বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ইরান ও আমেরিকা আফগানিস্তানে সাহায্য পাঠানোর ঘোষণা দেয়ছে।

ভারতের দিল্লি, কাশ্মির, হিমাচল প্রদেশ, হরিয়ানা ও পাঞ্জাবেও শক্তিশালী ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। ভূমিকম্প শুরুর পরপরই লোকজন ভবন ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসে। ভূমিকম্পের সময় প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে দিল্লির মেট্রো সার্ভিস বন্ধ করে দেয়া হয়। বাংলাদেশেরও কয়েকটি এলাকায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল থেকে ২৫০ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে হিন্দুকুশ অঞ্চলের ২১৩ কিলোমিটার গভীরে। সূত্র: আইআরআইবি