বুধবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

English

তেহরানে বাংলাদেশি দুই আলোকচিত্রীর ছবিতে রোহিঙ্গা বিপন্নতা

পোস্ট হয়েছে: অক্টোবর ২৬, ২০১৭ 

news-image

‘বর্ডার অব লোনলিনেস’ শীর্ষক ছবি প্রদর্শনী শুরু হয়েছে ইরানের রাজধানী তেহরানে, যেখানে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের বিপন্নতার জ্বলন্ত দৃশ্য তুলে ধরা হয়েছে। ক্যামেরায় তোলা বাস্তবিক ছবির প্রদর্শনের মাধ্যমে ফুটে তোলা হয়েছে রোহিঙ্গাদের যন্ত্রণা ও দুঃখ-বেদনা।

গত সোমবার তেহরান আর্ট ব্যুরোর ইরানিয়ান ফটোগ্রাফার্স সেন্টারে (আইপিসি) প্রদর্শনীটি শুরু হয়েছে। এতে বাংলাদেশ থেকে অংশ নিয়েছেন নুর ও সুমন পাল নামে দুই আলোকচিত্রী। যারা বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আর্তনাদ নিয়ে নিজেদের তিক্ত অভিজ্ঞতাকে ক্যামেরাবন্দি করেছেন।

বাংলাদেশি এই আলোকচিত্রীদ্বয় সীমান্তে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের চিৎকার-আহাজারি এবং হাতে তৈরি ক্যাম্পে তাদের বসবাসের করুণ চিত্র ধারণ ধরেছেন এবং তা তুলে ধরেছেন বিশ্ববাসীর কাছে।

প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আইপিসি ডিরেক্টর এহসান বাকেরি বলেন, ‘ইরানিয়ান ফটোগ্রাফার্স সেন্টার আলম ও পালকে এসব দৃশ্য ধারণের জন্য নিযুক্ত করে। এর আগে আইপিসি বাংলাদেশের বিভিন্ন আলোকচিত্রীর সঙ্গে কথা বলে।’’বাকেরি বলেন,  ‘‘আমার সঙ্গে সম্মত হয় যে, তারা সীমান্তের কাছাকাছি থেকে পছন্দসই কালো ও সাদা রঙের ছবি তুলবে, যার মাধ্যমে তারা শরণার্থীদের যন্ত্রণা ও তিক্ত অনুভূতিকে বাস্তবিকভাবে তুলে ধরবেন।’’

আলম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বলেন, আমি পাঁচ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা মুসলিমের মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসার প্রত্যক্ষদর্শী। তিনি উল্লেখ করেছেন, শিশু ও বয়স্করা সবচেয়ে বেশি ভুক্তভোগীর শিকার হয়েছে।বিশ্ববাসীকে মিয়ানমারের নিপীড়িত মানুষের কান্না শোনাতে সাহায্য করতে চান বলে জানান তিনি।রোহিঙ্গাদের দুর্দশা নিয়ে শুরু হওয়া এই ছবি প্রদর্শনী চলবে আগামী আট নভেম্বর পর্যন্ত।

সূত্র: তেহরান টাইমস।