মঙ্গলবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘তাকফিরি মতবাদ মোকাবেলায় ইসলামকে তুলে ধরতে হবে’

পোস্ট হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৬ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, ইসলামকে তুলে ধরার মাধ্যমে তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিভেদ সৃষ্টিকারী মতবাদ মোকাবেলা করা সম্ভব। ইরান সফররত আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভকে দেয়া সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানিও উপস্থিত ছিলেন।

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা তুলে ধরা এবং নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালনের ফলে জনগণ তাকফিরি হুমকি মোকাবেলায় উৎসাহিত হয়ে উঠতে পারে। নানা সমস্যা ও হুমকি মোকাবেলার ক্ষেত্রে এগুলো ঐশী সহযোগিতা হিসেবে কাজ করবে।

সর্বোচ্চ নেতা বলেন, রাজনৈতিক সুসম্পর্ক ও নানা ক্ষেত্রে বিশেষ করে ধর্মীয় অভিন্নতার কারণে আজারবাইজানের জনগণকে ইরান সাধারণ বন্ধুত্ব ও প্রতিবেশির দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখে না বরং তাদেরকে ভ্রাতৃত্বের কাঠামোয় বিবেচনা করে। তিনি বলেন, “রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, নিরাপত্তা, শান্তি এবং আজারবাইজানের জনগণের কল্যাণ আমাদের কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এর পাশাপাশি দু দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে আন্তরিক সহযোগিতা অবশ্যই বাড়াতে হবে।”

কয়েকটি পরাশক্তির শত্রুতামূলক তৎপরতার বিরুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার জন্য দেশটির জনগণের ইসলামি ও শিয়া বিশ্বাসের প্রতি সমর্থন দিতে সর্বোচ্চ নেতা আজারবাইজানের প্রেসিডেন্টকে আহ্বান জানান।

সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ বলেন, অভিন্ন উৎস থেকে আজারবাইজান ও ইরানের বিরুদ্ধে হুমকি আসছে। সে কারণে এ অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় তেহরান এবং বাকু একসঙ্গে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কাজ করতে একমত হয়েছে। আন্তর্জাতিক নানা ইস্যুতে ইরান এবং আজারবাইজানের অংশীদারমূলক অবস্থানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে ইরান সারা বিশ্বে আদর্শ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।সূত্র: আইআরআইবি