মঙ্গলবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৫ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

জুরি বোর্ডের নেতৃত্বে ইরানি চলচ্চিত্রকার অসকৌয়েই

পোস্ট হয়েছে: মে ২৭, ২০১৮ 

news-image

পোলিশ চলচ্চিত্র উৎসবে জুরি বোর্ডের প্রধান নির্বাচিত হলেন প্রখ্যাত ইরানি চলচ্চিত্র নির্মাতা মেহরদাদ অসকৌয়েই। কয়েক দিন পর পোল্যান্ডে শুরু হতে যাচ্ছে ৫৮তম ক্রাকাও চলচ্চিত্র উৎসব। এই উৎসবের শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতা বিভাগে জুরি বোর্ডের নেতৃত্ব দেবেন বহু অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত এ চলচ্চিত্রকার।

পোলিশ চলচ্চিত্র উৎসবের জুরি বোর্ড তথা বিচারক প্যানেলের অপর সদস্যরা হলেন- লাইদিয়া বেইলবাই (যুক্তরাজ্য), মাইকেল ব্রুকে (যুক্তরাজ্য), ম্যাটিও গ্যারিগলিও (সুইজারল্যান্ড) ও মারিয়াশ্জ (পোল্যান্ড)।

অসকৌয়েই পরিচালিত ‘স্টারলেস ড্রিমস’ ৩৬তম ফেস্টিভ্যাল ইন্টারন্যাশনাল ডু সিনেমা এথনোগ্রাফিক জ্যাঁ রৌচে চলচ্চিত্র উৎসবে সর্বোচ্চ পুরস্কার গ্রান্ড প্রিক্স ন্যানুক অ্যাওয়ার্ড এবং ২০১৬ বারলিন ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালে অ্যামনেস্টি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করে। এছাড়া তিনি সেরা প্রামাণ্যচিত্রের জন্য ফুল ফ্রেম ডকুমেন্টারি ফিল্ম ফেস্টিভাল ২০১৬’তে ইনস্পাইরেশন অ্যাওয়ার্ড, ২০১৬ ইন্টারন্যাশনাল ডকুমেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনে রিভা ও ডেভিড লোগান জুরি অ্যাওয়ার্ড; পেইর লোরেঞ্জ অ্যাওয়ার্ড, ২০১৬ লন্ডন ফিল্ম ফেস্টিভালে ‘গ্রিয়ারসোন অ্যাওয়ার্ড’ ও ট্রু/ফলস ফিল্ম ফেস্ট ২০১৬’তে ‘ট্রু ভিশন অ্যাওয়ার্ড’ লাভ করেন।

অসকৌয়েই একাধারে একজন স্বতন্ত্র চলচ্চিত্র প্রযোজক, প্রামাণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক, স্ক্রিনরাইটার এবং চলচ্চিত্র শিক্ষাবিদ। তার অনেক ছবি দেশে ও দেশের বাইরে শীর্ষস্থানীয় সব চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে তিনি অর্জন করেছেন সমালোচকদের প্রশংসা। ১২০টিরও অধিক প্রসিদ্ধ চলচ্চিত্র উৎসবে অসকৌয়েই জুরি বোর্ডের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। পাশাপাশি তিনি জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা বিষয়ক কমিটি ওসিএইচএ’তে সাংস্কৃতিক দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়াও এই ফারসি চলচ্চিত্রকার ইরানিয়ান শর্ট ফিল্ম অ্যাসোসিয়শেন ও ডকুমেন্টারি ফিল্মমেকারস অ্যাসোসিয়েশন অব ইরানের পরিচালনা পর্ষদে দায়িত্ব পালন করেছেন। ইরানের চলচ্চিত্র বিষয়ক বিভিন্ন স্কুলে তিনি পাঠদান করেছেন। তার ছাত্রছাত্রীরা বর্তমানে ইরানের প্রামাণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতাদের পরবর্তী প্রজন্ম হিসেবে স্বীকৃতি পাচ্ছে।

আসন্ন পোলিশ চলচ্চিত্র উৎসবের শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতা বিভাগে ১০টি প্রামাণ্য চলচ্চিত্র, ১৩টি ফিকশন ও ১২টি অ্যানিমেশন ছবি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এই বিভাগে সর্বোচ্চ পুরস্কার তথা গোল্ডেন ড্রাগন অ্যাওয়ার্ডের জন্য লড়বে ইরানি চলচ্চিত্র ‘দ্যা ডিস্টেন্স’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন নির্মাতা ইউসেভ কারগার।

বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতপ্রাপ্ত এই চলচ্চিত্র উৎসবে মূলত প্রামাণ্যচিত্র,  অ্যানিমেশন ও স্বল্প দৈর্ঘ্য ছবিকে প্রাধান্য দেওয়া হয়ে থাকে। এবারের ৫৮তম আসর ২৭ মে শুরু হয়ে চলবে ৩ জুন পর্যন্ত। উৎসবের চারটি প্রতিযোগিতা ও ১২টি অ-প্রতিযোগিতা বিভাগে পোল্যান্ড ও অন্যান্য দেশের প্রায় আড়াইশ’ ছবি দেখানো হবে। সূত্র: ইরান ডেইলি।