শুক্রবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

জাতীয় ভলিবল দলের কোচের সাক্ষাৎকার

পোস্ট হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ 

news-image

বাংলাদেশ ভলিবল দলের সফল কোচ ইরানি নাগরিক আলিপোর অরোজি।ভলিবলের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের সেরা সাফল্যটি এসেছে তার হাত ধরেই । প্রায় চার বছর ধরে জাতীয় ভলিবল দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। তার অধীনে বাংলাদেশ ভলিবল দলের সফলতা ও বাংলাদেশে তার দীর্ঘ সময়ের অভিজ্ঞতা নিয়ে শুক্রবার ঢাকাস্থ ইরান সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের  অনলাইন জার্নাল ইরান মিররের সাথে কথা বলেন তিনি। তার সাক্ষাৎকারটি সরাসরি তুলে ধরা হলো।

বাঁ থেকে বাংলাদেশ ভলিবর দলের কোচ আলিপোর অরোজি, মাঝখানে ঢাকাস্থ ইরান সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কালচারাল কাউন্সেলর সাইয্যেদ হাসান সেহাত এবং ডানে ঢাকাস্থ ইরান সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের জনসংযোগ কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম

ইরান মিরর: কেমন আছেন ?

আলিপোর অরোজি : ভালো আছি, আপনাকে ধন্যবাদ।

ইরান মিরর: কত বছর যাবৎ আপনি বাংলাদেশে আছেন ?

আলিপোর অরোজি : প্রায় চার বছর ধরে আমি বাংলাদেশে আছি।

ইরান মিরর: দীর্ঘ সময় আপনি বাংলাদেশে আছেন, কেমন লাগছে এই দেশ ?

আলিপোর অরোজি : নিঃসন্দেহে বেশ ভালো লাগছে। আর ভালো না লাগলে এতো দীর্ঘ সময় এদেশে থাকা তো সম্ভব হতো না। এদেশটা যেমন সুন্দর, দেশের মানুষগুলোও তেমন সুন্দর।অতিথিপরায়ণ।তাদের ভালোবাসাতেই তো আমি এতদিন এখানে আছি।

ইরান মিরর: আপনি কোচ হিসেবে বাংলাদেশে আসার আগে এদেশের জাতীয় ভলিবল দলের অবস্থা কী ছিল এবং এখন কোন্‌ পর্যায়ে রয়েছে?

আলিপোর অরোজি : আমি বাংলাদেশে আসার আগে দলটির অবস্থান খুব একটা ভালো না থাকলেও আল্লাহর রহমতে আমি এখানে আসার পর থেকেই দলটি ধীরে ধীরে উন্নতি করতে থাকে। এমনকি ২০১৬ সালে বঙ্গবন্ধু এশিয়ান সিনিয়র মেন্স সেন্ট্রাল জোন আন্তর্জাতিক চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপাও জিতে নেয় দলটি।যা ছিল বাংলাদেশ ভলিবল দলের ইতিহাসে প্রথম আন্তর্জাতিক ট্রফি। এরপরের প্রতিযোগিতাতেও বাংলাদেশ ভলিবল দল রানার্স আপ হয়েছে।

ইরান মিরর: আপনার অধীনে বাংলাদেশ ভলিবল দল প্রথম আন্তর্জাতিক চ্যাম্পিয়নিশিপের শিরোপা জয় করেছে এবং একবার রানার্স আপ হয়েছে। দলের এই সফলতার ব্যাপারে আপনার অনুভূতি কী?

আলিপোর অরোজি : নিঃসন্দেহে এটা আমার জন্য অত্যন্ত ভালোলাগার একটা বিষয়।আমার অধীনে একটা দেশের জাতীয় দলের আন্তর্জাতিক ট্রফি অর্জন, কোচ হিসাবে এটা আমার জন্য একটা বড় পাওয়া।

ইরান মিরর: দলটিকে আরো শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে আপনার আর কী পরিকল্পনা রয়েছে ?

আলিপোর অরোজি : যেকোন ক্রীড়া দলের উন্নয়নে যে দিকগুলোর প্রতি বেশি নজর দেয়া উচিত তা হলো, উন্নত প্রশিক্ষণ, নিয়মিত টুর্নামেন্ট খেলা আয়োজন ও নতুন ট্যালেন্ট খুঁজে বের করা।আমি এখানে বাংলাদেশ ভলিবল দলকে নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেয়ার পাশাপাশি ইরানেও দুই বার উন্নত প্রশিক্ষণ দেয়ার ব্যবস্থা করেছি। সেখানে প্রশিক্ষণের পাশাপাশি প্রথম দফায় ১৪ টি প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় যেখানে ৭টিতে বাংলাদেশ দল জয়লাভ করে আর ৭ টিতে পরাজিত হয়। আর দ্বিতীয় দফায় ১০ টি খেলা অনুষ্ঠিত হয় এবং এতে বাংলাদেশ দল চারটিতে বিজয়ী হয়। এই যে বিভিন্ন দলের সাথে খেলার যে অভিজ্ঞতা এটা দলকে শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখে।

ইরান মিরর: দলের উন্নয়নে নতুন ট্যালেন্ট খুঁজে বের করার উপর আপনি গুরুত্বারোপ করেছেন।তো বাংলাদেশ ভলিবল দলে নতুন ট্যালেন্ট খুঁজে বের করার ব্যাপারে আপনার বিশেষ কোনো উদ্যোগ রয়েছে কি?

আলিপোর অরোজি: দলের উন্নয়নে নতুন ট্যালেন্ট খুঁজে বের করার প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম।সারাদেশ থেকে আমরা যাতে নতুন ট্যালেন্টদের খুঁজে বের করতে পারি এজন্য আমরা বিশেষ কর্ম পরিকল্পনা নিয়ে এগোতে চাই।