রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

English

করোনাভাইরাস রোধে ৫টি অর্জন শিগগিরই উন্মোচন করা হবে: ইরানি সেনাবাহিনী

পোস্ট হয়েছে: এপ্রিল ১৫, ২০২০ 

news-image

ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি একটি মাস্ক তৈরির কারখানা পরিদর্শন করছেন
ইরানের সামরিক বাহিনীর স্থল ইউনিটের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কিয়ামার্স হায়দারি বলেছেন, মহামারী করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ শনাক্তকরণ এবং ভয়াবহ এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকানোর লক্ষ্যে তার বাহিনী স্বাস্থ্য-সংশ্লিষ্ট পাঁচটি অর্জন খুব শিগগিরই উন্মোচন করবে।

জেনারেল কিয়ামার্স হায়দারি আজ (মঙ্গলবার) বলেন, আগামীকাল বুধবার একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে করোনাভাইরাস শনাক্তের জন্য দু’টি এবং জীবাণুমুক্ত করার জন্য তিনটি অর্জন উন্মোচন করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ইরানের শহর এবং খোলা জায়গাগুলো জীবাণুমুক্ত করার জন্য সেনাবাহিনী এরইমধ্যে একটি মেগা প্রকল্প গ্রহণ করেছে। জেনারেল হায়দারি এসময় করোনাভাইরাস রোগের অবসান ঘটানোর জন্য মাস্ক, জীবাণুনাশক সামগ্রী তৈরি, সারা দেশে কনভালসেন্টস কেন্দ্র এবং মোবাইল হাসপাতাল প্রতিষ্ঠাসহ সেনাবাহিনীর নেয়া নানা পদক্ষেপের বিবরণ দেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর ব্যক্তির শরীরের রক্তরস নিয়ে গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তির শরীরে সেই রক্তরস প্রয়োগ করা হয়। আর এটিই হলো কনভালসেন্টস প্লাজমা থেরাপি।

ইরানের সামরিক বাহিনীর স্থল ইউনিটের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কিয়ামার্স হায়দারি
কমান্ডার কিয়ামার্স হায়দারি বলেন, ইরানি সেনাবাহিনী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জন্য ২৮টি হাসপাতাল, ১২ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী এবং ৯ হাজার ৯০০ হাসপাতালের বেড প্রস্তুত করে দিয়েছে।

এছাড়া পাঁচটি অর্জন ছাড়াও সাইবার নিরাপত্তা, তথ্য এবং যোগাযোগ বা আইসিটি ক্ষেত্রে আরো কিছু সফলতা আগামীকাল বুধবারের অনুষ্ঠানে উন্মোচন করা হবে বলেও জানান তিনি। বিভিন্ন যুদ্ধ সরঞ্জাম স্থানীয়ভাবে তৈরি করা হচ্ছে উল্লেখ করে জেনারেল হায়দারি বলেন, আগামীকালের অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের ট্যাংক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রও তুলে ধরা হবে।

পার্সটুডে/