সোমবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরান থেকে তেল আমদানি বৃদ্ধি করবে ভারত

পোস্ট হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১৮ 

news-image

গত বছরের এপ্রিল থেকে গেল জানুয়ারি মাস পর্যন্ত অর্থ বছরের প্রথম দশ মাসে ইরান থেকে ভারতের তেল আমদানি কমেছে প্রায় ১৭ শতাংশ।  এসময় ইরান থেকে ৪ লাখ ৪২ হাজার ৮শ ব্যারেল (বিপিডি) তেল আমদানি করে দেশটি।  এ অবস্থায় আগামী অর্থবছরে ইরান থেকে তেল আমদানির পরিমাণ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি তেহরান ইরানের বৃহত্তম গ্যাসক্ষেত্র ফারজাদ বি গ্যাস ফিল্ড ও অন্যান্য গ্যাসক্ষেত্র গুলোর জন্য উন্নয়ন অধিকার মঞ্জুরের উদ্যোগ নেয়।  এর প্রতিবাদে আমদানি কমিয়ে দেয় ইরানের রাষ্ট্রীয় তেল শোধনাগারগুলো। এতে ইরান থেকে ভারতের তেল আমদানি কমে যায়।  ভারতের প্রতিদিন প্রায় ৫০ লাখ ব্যারেল তেল আমদানির চাহিদা রয়েছে।  যার দুই তৃতীয়াংশ সরবরাহ করে ইরানের রাষ্ট্রীয় শোধনাগারগুলো।

ভারতের তেলমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘অন্যান্য বড় বড় উৎপাদকদের তুলনায় আমরা ভালো প্রণোদনা পেয়েছি।  আমরা যদি ইরান থেকে  তেল ক্রয় করি তাহলে আমরা লাভবান হবো। ..চলতি অর্থ বছরের তুলনায় আগামী অর্থবছরে আমরা ইরান থেকে তেল আমদানি বৃদ্ধি করবো। ’’

নিষেধাজ্ঞা আরোপের পূর্বে ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম তেল সরবরাহকারী দেশ ছিল ইরান।  দেশটি ধীরে ধীরে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তেল খরচ দেশের মার্কেট শেয়ার বৃদ্ধি করছে।

২০১৭ সালে বাৎসরিক সরবরাহের ভিত্তিতে ইরাক প্রথমবারের মতো ভারতে শীর্ষ তেল সরবরাহকারী দেশ হিসেবে আবির্ভুত হয়।  দ্বিতীয় সরবরাহকারী দেশ হিসেবে সৌদি আরব উঠে আসে।

সম্প্রতি ফারজাদ বি গ্যাস ক্ষেত্রের জন্য প্রায় ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি উন্নয়ন পরিকল্পনার প্রস্তাব দিয়েছে ভারত।  বিনিয়োগের এই অর্থ দুই সংখ্যায় ফেরত পেতে প্রতি ব্রিটিশ থার্মাল ইউনিট গ্যাসের দাম ৪ ডলার দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।  সূত্র: ফিনানসিয়াল ট্রিবিউন।