বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০১৯ ইং, ৩রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘ইরানে সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের কোনো ইচ্ছা রাশিয়ার নেই’

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ২৫, ২০১৬ 

news-image

রাশিয়া কখনোই ইরানে সামরিক ঘাঁটি স্থাপন করতে চায়নি এবং ভবিষ্যতেও এ ধরনের কোনো পরিকল্পনা মস্কোর নেই। একথা জানিয়েছেন তেহরানে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত লুয়ান জাগারিয়ান। ইরানের বার্তা সংস্থা তাসনিম নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেছেন তিনি।

রুশ জঙ্গিবিমান দায়েশ বিরোধী অভিযান চালাতে গিয়ে ইরানের হামেদান প্রদেশের নোজেহ ঘাঁটি ব্যবহার করেছে বলে খবর প্রকাশিত হওয়ার পর সৃষ্ট উদ্বেগ সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে রাষ্ট্রদূত একথা জানান। তিনি বলেন, মস্কো ইরানের জনগণ ও সংসদ সদস্যদের জানাতে চায়, এদেশের সংবিধানের ১৪৬ ধারার প্রতি রাশিয়ার পূর্ণ সম্মান রয়েছে। কাজেই ইরানে সামরিক ঘাঁটি স্থাপনের কোনো অভিপ্রায় মস্কোর নেই।

রাশিয়া ইরানকে নিজের বন্ধু মনে করে- উল্লেখ করে রুশ রাষ্ট্রদূত বলেন, সামরিক ঘাঁটি সংক্রান্ত যেসব খবর গণমাধ্যমে এসেছে তা ভুল বোঝাবুঝি ছাড়া আর কিছু নয়। কয়েকটি রুশ জঙ্গিবিমান ইরানের শীর্ষ পর্যায় থেকে অনুমতি নিয়েই গত সোমবার হামেদানের নোজেহ ঘাঁটিতে অবতরণ করেছিল বলে জানান তিনি। জাগারিয়ান বলেন, সন্ত্রাস বিরোধী যৌথ যুদ্ধের অংশ হিসেবে এসব বিমান হামেদানে অবতরণ করে।

ইরানের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক সংসদীয় কমিটির প্রধান আলাউদ্দিন বোরুজেরদি  বলেছেন, রুশ বিমান ইরানের নোজেহ বিমানঘাঁটি থেকে  কেবল জ্বালানি নিয়েছে। বুধবার সংসদ অধিবেশনের অবকাশে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় বোরুজেরদি বলেন, “নোজেহ বিমানঘাঁটি ইরাক ও সিরিয়ার বিমানপথে পড়ে বলেই একে জ্বালানি নেয়ার জন্য বাছাই করা হয়েছে।”সূত্র:পার্সটুডে