মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন পাক সেনাপ্রধান

পোস্ট হয়েছে: নভেম্বর ৭, ২০১৭ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানে তিনদিনের সফরে এসে ব্যস্ত সময় কাটছে পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার। এরইমধ্যে তিনি ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

বৈঠকে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেছেন- সন্ত্রাসবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও জাতিগত বিভক্তি মুসলিম বিশ্বকে পীড়া দিচ্ছে। এ ধরনের বিভক্তি সৃষ্টি ও তা ছড়িয়ে দেয়ার জন্য তিনি বিশ্বের কয়েকটি বলদর্পী শক্তিকে দায়ী করেন। তিনি বলেন, এইসব শক্তি মুসলমানদের মধ্যে ঐক্য ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক দেখতে চায় না কারণ এ ধরনের ঐক্য ও ভাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠলে মুসলিম দেশগুলো নিঃসন্দেহে তাদের মধ্যকার সমস্যা কারো হস্তক্ষেপ ছাড়াই সমাধান করে ফেলবে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, ইরান ও পাকিস্তানের মধ্যকার সহযোগিতামূলক সম্পর্ক বিশ্বের মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐক্য জোরদারের ক্ষেত্র প্রস্তুত করে দিতে পারে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করা এবং কোনো সন্দেহ নেই যে, একমাত্র সংলাপই মুসলিম দেশগুলো মধ্যকার মতপার্থক্য দূর করতে পারে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা জোরদার করার জন্য ইরান ও পাকিস্তানের মধ্যে প্রতিরক্ষা এবং সামরিক সহযোগিতা বিস্তারকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, পাকিস্তানসহ প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠায় ইরান প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বৈঠকে পাক সেনাপ্রধান জেনারেল বাজওয়া ইরান ও পাকিস্তানের মধ্যকার গভীর সম্পর্কের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, তার দেশ ইরানের সঙ্গে প্রতিরক্ষা ও সামরিক সম্পর্ক আরো গভীর করতে আগ্রহী। এর পাশাপাশি রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্কও জোরদার করতে চায়।

জেনারেল বাজওয়াও মুসলিম দেশগুলোর মধ্যকার বিদম্যান সমস্যা সংলাপের মাধ্যমে সমাধানের ওপর গুরুত্বারাপ করেন। এছাড়া, অস্ত্র বিক্রির লক্ষ্য নিয়ে পশ্চিমা দেশগুলো মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে যে বিভক্তি সৃষ্টি করে তার সুযোগ দেয়া মোটেই উচিত না বলে মন্তব্য করেন।

এর আগে জেনারেল বাজওয়া ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ ও সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরির সঙ্গে বৈঠক করেন।

রোববার শেষ বেলায় তিনি পাকিস্তানের একটি উঁচু পর্যায়ের সামরিক প্রতিনিধিদলকে সঙ্গে নিয়ে তিনদিনের সফরে ইরান আসেন।- পার্সটুডে।