রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানে পাঁচ অভিনেতা পাচ্ছেন আজীবন সম্মাননা

পোস্ট হয়েছে: জুলাই ১৭, ২০১৯ 

news-image

ইরানের পাঁচ অভিনেতা-অভিনেত্রী পাচ্ছেন আজীবন সম্মাননা। তেহরানে অনুষ্ঠিতব্য ৭ম শাহর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তাদের এই সম্মাননা দেওয়া হবে। ইরানের যেসব অভিনেতা ও অভিনেত্রী সম্মাননা পাচ্ছেন তারা হলেন অভিনেতা আলি নাসিরিয়ান, দারিউশ আসাদজাদেহ, মাসুদ রায়েগান, রোয়া তেইমুরিয়ান ও পারভানেহ মাসুমি। সোমবার তেহরানে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান উৎসবের পরিচালক হাশেম মিরজাখনি।

অভিনেতা নাসিরিয়ান ১৯৬৯ সালে দারিউশ মেহরজুইয়ের ‘দ্যা কাও’ চলচ্চিত্র দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন। এছাড়া তিনি অসংখ্য প্রশংসিত সিনেমা, টিভি ও নাট্য প্রযোজনায় সহযোগিতা করেছেন। ৯৫ বছর বয়সী আসাদজাদেহ বিজান বিরাঙ্গ ও মাসুদ রাস্সামের যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘দ্যা গ্রিন হাউস’, মেহদি ফাখিমজাদেহর ‘দ্যা স্পাউস’ ও নাসের হাশেমির ‘সামানদুন’ সহ শতাধিক ম্যুভি ও টিভি সিরিজে অভিনয় করেছেন।

অভিনেতা রায়েগান নির্মাতা রেজা মিরকারিমির ২০০৫ সালের ড্রামা ‘সো ক্লোজ, সো ফার’ এ দারুণ অভিনয়ের জন্য খ্যাতি লাভ করেন। ছবিটিতে অভিনয়ের জন্য ২৩তম ফজর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা অভিনেতার জন্য মনোনয়ন লাভ করেন।

অভিনেত্রী তেইমুরিয়ান বেহরুজ কারিবপুরের ‘লেস মিজারেবলস’, নাসরোল্লাহ কাদেরির ‘হেরা’, আলিরেজা কুশক জালালির ‘ইন্সপেক্টর’ ও আলি রাফিয়েয়ির ‘দ্যা হাউস অব বারনারদা আলবা’ তে উল্লেখ করার মতো পারফরমেন্স করেন। এছাড়া তিনি অনেক টিভি সিরিজে অভিনয় করেও অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। মাসুমি প্রখ্যাত ইরানি পরিচালক বাহরাম রেইজায়ির ১৯৭২ সালের ছবি ‘ডাউনপুর’ ও ১৯৭৪ সালের ছবি ‘দ্যা স্ট্রেঞ্জার’ ও ‘দ্যা ফগ’ এ সহায়তা করেন।

বুধবার রাজধানী তেহরানে ইভেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত হবে। এদিন কিংবদন্তি অভিনেতা জমশিদ মাশায়েখিকে শ্রদ্ধা জানানোর পরিকল্পনা করছেন আয়োজকেরা। সূত্র: তেহরান টাইমস।