রবিবার, ৩রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

English

ইরানে তাঁবু বসিয়ে দৃষ্টিনন্দন প্রকৃতি উপভোগের সেরা সব স্থান

পোস্ট হয়েছে: জুন ৭, ২০২২ 

news-image
প্রাগৈতিহাসিক, প্রাচীন এবং ইসলামি ঐ্রতিহ্যবাহী স্থানগুলি দেখার জন্য ইরান ভ্রমণ করেন বহু মানুষ। দুর্দান্ত এসব অনুপ্রেরণায় বিভিন্ন দেশ থেকেই ছুটে আসেন পর্যটকরা। এছাড়াও ইরানি পর্যটনের জন্য আরেকটি ট্রাম্প কার্ড হল দেশটির আদিম ও দৃষ্টিনন্দন প্রাকৃতিক ভূ-দৃশ্য।আপনি এখানে সবচেয়ে মনোরম এবং বিস্ময়কর দৃশ্যের স্বাদ উপভোগ করতে পারেন। ছবি-ভিডিও ধারণ করতে পারেন আশ্চর্যজনক অনেক কিছুর।
ইরানে তাঁবু গাড়া যায় এমন স্পটগুলিতে দারুণ কিছু সময় ব্যয় করতে পারেন। সুযোগ নিতে পারেন ইরানি মরুভূমিকে কাছ থেকে উপভোগ করার। আর অর্থ সাশ্রয়ী হওয়ার কারণে ভ্রমণপিপাসুরা এটাকে খুব সুবিধাজনক হিসেবেই দেখে থাকেন।
ইরানে কোনও নির্দিষ্ট ক্যাম্পিং সাইট নেই। তাই প্রাকৃতিক সবুজ একটি গন্তব্য পছন্দ করুন এবং তাঁবু বসিয়ে সেরা কিছু মুহূর্ত পার করুন।
সাম্প্রতিক বছরগুলিতে ইরানে বেশি বেশি দেশী-বিদেশী পর্যটক আকৃষ্ট করতে দেশ জুড়ে বেশ কয়েকটি ঐতিহাসিক প্রাসাদ এবং গ্রামীণ বাড়ি ইকো-লজ ইউনিটে রূপান্তর করা হয়েছে।
বাড়িগুলি দেশীয় সংস্কৃতি, স্থানীয় রীতিনীতি, ঐতিহ্য এবং গল্পের প্রতিনিধিত্ব করে। রূপান্তরিত এসব ইকো-লজ ইউনিটগুলোতে অতিথিদের স্থানীয় বিখ্যাত সুস্বাদু খাবার পরিবেশন করা হয়। এই ইকো-লজ ইউনিটগুলিতে থাকা অন্যান্য আবাসন কেন্দ্রের তুলনায় অনেক সস্তা।
দেশীয় এবং স্থানীয় সংস্কৃতির অভিজ্ঞতা নিতে এখানে পর্যটক আগমনের হার দিন দিন বাড়ছে। প্রাকৃতিক এবং আদিবাসী জীবনযাত্রা কাছ থেকে উপভোগ করার প্রবণতাও বেড়ে চলেছে দিন দিন। তাই পুরনো দিনের জীবনযাত্রার অভিজ্ঞতা লাভের বিবেচনায় ইরান এখন শীর্ষস্থানীয় পর্যটন গন্তব্য।
নিচে ইরানের ক্যাম্পিং স্পটগুলির একটি তালিকা দেয়া হলো-দামাভান্দএশিয়ার সর্বোচ্চ আগ্নেয় পর্বত এবং ইরানের সর্বোচ্চ পর্বত দামাভান্দ। এটি আলবোর্জ পর্বতমালার পাদদেশে অবস্থিত।পর্বতটি ক্যাস্পিয়ান সাগরের দক্ষিণে আমোল নামক উত্তরের একটি শহরের কাছে অবস্থিত।আপনি যদি ইরানের চূড়ায় উঠতে চান এবং শারীরিক প্রস্তুতি থাকে তাহলে আপনার জন্য দুর্দান্ত একটি গন্তব্য দামাভান্দ পর্বত। কারণ এখানে ক্যাম্প করার এবং সৌন্দর্য অন্বেষণের স্বাদ নেওয়ার বিকল্প রয়েছে।কোর্দেস্তানকোর্দেস্তান হতে পারে ইরানের আরেকটি উপযুক্ত ক্যাম্পিং স্পট। এটি জাগ্রোস পর্বতমালা-বেষ্টিত প্রাকৃতিক আকর্ষণে ভরা একটি পাহাড়ী এলাকা। গ্রামীণ জেলা উরামনাত একটি সুপরিচিত পর্যটন গন্তব্য। এর অনন্য একটি বৈশিষ্ট্য হল- নিম্নস্থানীয় প্রতিটি বাড়ির ছাদ হচ্ছে উপরের বাড়ির উঠান। এই স্থাপত্যটি প্রকৃতির সাথে মিলেমিশে চোখ ধাঁধানো একটি ভূদৃশ্য তৈরি করেছে। ক্যাম্পাররা এখানে বিস্ময় দৃষ্টিতে দৃশ্য উপভোগ করার সুযোগ পান।চমৎকার এই  গ্রামটির কাছে তাঁবু টানুন, স্বাদ নিন উদার প্রকৃতির। রাতের স্বচ্ছ আকাশে তারাগুলো দেখুন, এক কাপ ইরানি চায়ে চুমুক দিন, যেকোনো জঞ্জাল থেকে মনকে করুন পরিষ্কার।লরেস্তানজলপ্রপাতের দেশ হিসেবে বিখ্যাত লোরেস্তান ব্যাকপ্যাকারদের জন্য একটি শীর্ষ গন্তব্য। ঘূর্ণায়মানকিছু পাহাড়ী রাস্তা ট্র্যাকিং এবং হাইক করার পরে, এবং জাগ্রোস পর্বতের তুষারময় শিখরগুলির সুন্দর দৃশ্য দেখার পরে, আশ্চর্যজনক লেক গহর দেখা যায়।লেকের চকচকে পৃষ্ঠ এবং বিশুদ্ধ ফিরোজা রঙ অত্যাশ্চর্য এবং মনোরম।গোলেস্তান প্রদেশ কাস্পিয়ান সাগরের তীরে একটি সমৃদ্ধ এলাকা। এটি ইরানের উত্তর-পূর্ব অঞ্চলে অবস্থিত। উত্তর খোরাসান প্রদেশের সাথে সীমানা ভাগ করে গড়ে উঠেছেগোলেস্তান ন্যাশনাল পার্ক। ইরানের সেরা ক্যাম্পিং সাইটগুলির মধ্যে অন্যতম এটি। দর্শনার্থীরা এখানে অবস্থানের সময় মরুভূমির বিরল প্রজাতির প্রাণী পর্যবেক্ষণ করার সুযোগ পান।আরদাবিলআরদাবিল প্রদেশ সমৃদ্ধ সংস্কৃতি এবং মহিমা দিয়ে সবাইকে বিস্মিত করে। একটি উচ্চ এবং বায়ুপ্রবাহিত মালভূমিতে ছড়িয়ে রয়েছে আর্দাবিল। অঞ্চলটির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, অতিথিপরায়ণ মানুষ এবং রেশম ও কার্পেট বাণিজ্য ঐতিহ্যের জন্য বেশ সুপরিচিত। ইউনেস্কো-নিবন্ধিত বিশ্ব ঐতিহ্য শেখ সাফি আল-দিন খানগাহ এবং শ্রাইন এনসেম্বলও এখানে অবস্থিত।প্রদেশটি শীতকালে খুব ঠাণ্ডা এবং গ্রীষ্মে হালকা উষ্ণ থাকে। প্রতি বছর হাজার হাজার পর্যটককে আকর্ষণ করে।মরুভূমিঅন্যান্য অনেক দেশে সহজে পাওয়া যায় না এমন একটি আকর্ষণ হল মরুভূমি। ইরানে বিশেষ প্রকৃতির আদিম মরুভূমি রয়েছে। স্থানীয় ট্যুর গাইড আপনাকে শান্ত মরুভূমিতে ক্যাম্পিং স্পটগুলিতে নিয়ে যেতে পারে এবং সেখানে আপনাকে বিভিন্ন আকর্ষণের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারে।বিশুদ্ধ টিলা, তাজা বাতাস এবং রাতে তারার দিকে তাকানো সবই যেন অনন্য অভিজ্ঞতা।ইসফাহানইসফাহান প্রদেশ বিভিন্ন প্রাকৃতিক এবং ঐতিহাসিক আকর্ষণে পরিপূর্ণ। পাহাড়, হ্রদ এবং মরুভূমির বৈচিত্র্য নিয়ে গড়ে উঠেছে প্রদেশটি। প্রাকৃতিক এবং সাংস্কৃতিক সৌন্দর্য সহ মরুদ্যান গ্রাম পরিদর্শনের অনন্য অভিজ্ঞতা নিতে ঘুরে আসুন ইসফাহান। আর ইসফাহান থেকে ইয়াজদ যাওয়ার সময় ইরানের কেন্দ্রীয় মরুভূমিতে এক রাত কাটানো সবচেয়ে উপভোগ্য জিনিসগুলির একটি। সূত্র: তেহরান টাইমস।