মঙ্গলবার, ১৯শে জুন, ২০১৮ ইং, ৫ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের সিনেমা হলে দেখা যাবে ফুটবল বিশ্বকাপ

পোস্ট হয়েছে: জুন ১৪, ২০১৮ 

news-image

রাশিয়ায় অনুষ্ঠেয় ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপের খেলা দেখা যাবে ইরানে সিনেমা হলে। ১৪ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত বিশ্বকাপের ৬৪টি ম্যাচের মধ্যে ৬টি খেলা দেখানো হবে ইরানের সিনেমা হলগুলোতে।

ইরানের চলচ্চিত্র বিষয়ক সর্বোচ্চ সংস্থার বরাত দিয়ে আই-ফিল্ম জানিয়েছে, ইরানের সবগুলো সিনেমা হলে প্রথম রাউন্ডে ইরানের তিনটি খেলা এবং সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচ দেখানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে, তেহরানের চরসু সিনেপ্লেক্স এ শিডিউলের বাইরে থাকবে। তারা বিশ্বকাপের সবগুলো ম্যাচ দেখাবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

কুরশ সিনেপ্লেক্স, তেহরান।

এদিকে, বার্তা সংস্থা ইলনা জানিয়েছে, ১৫ জুন ইরান ও মরক্কোর মধ্যে অনুষ্ঠেয় খেলার পাঁচ হাজার টিকিট দুই দিন আগেই বিক্রি হয়ে গেছে। যেসব সিনেমা হলের টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে সেগুলো হলো কুরশ, চরসু, আজাদি, আফ্রিকা, বা’গে কেতাব, জাওয়ান ও সামারকান্দ সিনেপ্লেক্স।

আসন্ন বিশ্বকাপের ‘বি’ গ্রুপে মরক্কো, স্পেন ও পর্তুগালের মুখোমুখি হবে ইরান। আগামী ১৫ জুন তাদের প্রথম খেলা মরক্কোর বিরুদ্ধে। সেন্ট পিটার্সবার্গে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি। ২০ জুন স্পেনেই বিপক্ষে এবং ২৫ জুন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালের বিপক্ষে খেলবে ইরান।

আসন্ন বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে এশিয়া থেকে সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকেট নিশ্চিত করে ইরান। বিশ্বকাপ শুরুর ৯ দিন আগে অর্থাৎ ৫ জুন মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত ৯টায় ইরানি ৩২টি দেশের মধ্যে প্রথম দল হিসেবে রাশিয়ায় পৌঁছে ইরান।

ইরানের ফুটবল দল

রাশিয়ায় পৌঁছে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ইরানের প্রধান কোচ কালোর্স কেইরুজ বলেন, “রাশিয়ায় এসে ইরানিয়ান ফুটবলের স্বপ্ন সত্যি হলো। আমরা কঠোর শ্রম ও ত্যাগের বিনিময়ে বিশ্বকাপের খেলার টিকেট অর্জন করেছি। এ জন্য ইরানিরা ও আমরা সম্মানিত বোধ করছি। এবারের আসরে আমরা নিজেদের সেরাটাই দিতে চাই। প্রথম রাউন্ডের বাধা টপকে যাওয়াই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। তবে কাজটি অনেক কঠিন হবে। কারণ আমাদের গ্রুপে পর্তুগাল-স্পেনের মতো বড় দল আছে। তারপরও আমাদের চেষ্টার কমতি থাকবে না। আশা করছি, দারুণ একটি বিশ্বকাপ হবে। এ জন্য সবাইকে শুভ কামনা জানাই।”

বিশ্বকাপে এই নিয়ে পঞ্চমবারের মতো অংশ নিতে যাচ্ছে ইরান। ১৯৭৮ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে অংশ নেয় দেশটি। এরপর ১৯৯৮, ২০০৬ ও ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ খেলে তারা।  – পার্সটুডে