মঙ্গলবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় ইরাকের বিখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক

পোস্ট হয়েছে: জুলাই ৪, ২০১৮ 

news-image

ইরানের সহযোগিতায় নতুন চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন বিখ্যাত ইরাকি-ডাচ চলচ্চিত্র পরিচালক মোহাম্মাদ আল-দারাদজি। ছবিটির মাধ্যমে বিশ্ববাসীর কাছে দুই দেশের অভিন্ন সংস্কৃতিকে তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সিকে আল-দারাদজি বলেন, ইরান ও ইরাকের মধ্যে দীর্ঘ ৮ বছরের যুদ্ধের কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। কিন্তু এ যুদ্ধের দীর্ঘ সময় পর ইরাক যখন পুনরায় যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ল তখন দেখা গেল- ইরানিরা আমাদের সমর্থন পেলেন। যে ঘটনা দ্বিধাদ্বন্দ্ব ও ভুল বোঝাবুঝির সূত্রপাত ঘটায়। তাই আমরা ছবিটির মাধ্যমে তাদের সেই প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি বলেন, ইরান ও ইরাক একই সংস্কৃতি ভাগাভাগি করে এবং দুদেশের উৎপত্তি হয়েছে একই জাতি থেকে। যেসব মানুষ দুদেশের এই অভিন্ন ইতিহাস সম্পর্কে বেশি কিছু জানে না তাদের মধ্যে মূলত ওই ভুল বোঝাবুঝি দানা বাঁধে। ছবিটর মাধ্যমে কেবল আট বছর আগেকার সেই স্মৃতিকে তুলে ধরা হবে।

যৌথ প্রযোজনায় ছবি তৈরি করা আর্থিক ও সাংস্কৃতিক উভয়ভাবেই যুক্তিসঙ্গত ও ফলদায়ক বলে উল্লেখ করেন সুপরিচিত চলচ্চিত্রকার আল-দারাদজি। তিনি বলেন, যৌথ প্রযোজনার ছবি বিভিন্ন দেশের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি করে। বিশেষত মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে যোগাযোগ বাড়াবে, যে অঞ্চল দ্বন্দ্ব এবং ভুল বোঝাবুঝিতে পরিপূর্ণ।

যৌথ প্রযোজনার ছবি নির্মাণে গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, বিশ্ব মিডিয়ায় ইরানের সংস্কৃতিকে অবাস্তবিকভাবে চিত্রিত করা হয়। আমরা বিশ্বের কাছে দুদেশের সংস্কৃতিকে উত্তমভাবে তুলে ধরতে চাই, যা পশ্চিমা মিডিয়ায় চিত্রিত দৃশ্য থেকে ভিন্ন।

ইরাক-ডাচ চলচ্চিত্র পরিচালক মোহাম্মাদ আল-দারাদজি ইরাকের রাজধানী বাগদাদে ১৯৭৮ সালের ৬ আগস্ট জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ইরাকে থিয়েটার বিষয়ে পড়ালেখা করেছেন এবং ইংল্যান্ডে লেখাপড়া করেছেন সিনেমাটোগ্রাফি ও পরিচালনা বিষয়ে। মধ্যপ্রাচ্যের রাজনৈতিক বিষয় সংশ্লিষ্ট ও আন্তর্জাতিক সম্পর্কে তার প্রভাব নিয়ে ড্রামা তৈরি করে সুপিরিচিত লাভ করেছেন বিখ্যাত এই চলচ্চিত্র পরিচালক। সূত্র: মেহর নিউজ এজেন্সি।