বৃহস্পতিবার, ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের প্রেসিডেন্ট প্রার্থীদের প্রথম বিতর্ক শেষ

পোস্ট হয়েছে: এপ্রিল ৩০, ২০১৭ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ছয় প্রার্থীর মধ্যে প্রথম রেডিও-টিভি বিতর্ক শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রার্থীদের বিতর্ক ইরানের জাতীয় টিভি ও রেডিওতে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে। বিতর্কের বিষয় ছিল-আর্থ-সামাজিক সমস্যা।

প্রত্যেক প্রার্থী আর্থ-সামাজিক সমস্যা সমাধানে নিজের কর্মসূচি তুলে ধরেছেন। কোনো কোনো প্রার্থী অপর প্রাথীর কর্মসূচি ও বক্তব্যের সমালোচনাও করেছেন। সব প্রার্থীই দারিদ্র ও আবাসন সমস্যা সমাধানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। পার্সটুডের খবর।

ছয় প্রার্থীর অংশগ্রহণে তিনটি বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় বিতর্ক অনুষ্ঠিত হবে আগামী পাঁচ মে রাজনৈতিক ইস্যুতে এবং তৃতীয় ও শেষ বিতর্ক হবে ১২ মে অর্থনৈতিক বিষয়ে।

এর আগের দু’টি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় প্রার্থীদের বিতর্ক সরাসরি সম্প্রচার করেছিল জাতীয় সম্প্রচার সংস্থা আইআরআইবি। দুইবারই প্রার্থীদের বিতর্ক ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়। ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বিতর্কে প্রত্যেক প্রার্থীকে সমান সুযোগ দেওয়া হয়। প্রার্থীরা নিজেদের নানা কর্মসূচি ও প্রতিশ্রুতি তুলে ধরার পাশাপাশি পরস্পরের গঠনমূলক সমালোচনাও করে থাকেন। এর মধ্যদিয়ে ভোটাররা প্রার্থীদের যোগ্যতা ও কর্মসূচি যাচাইয়ের সুযোগ পান।

আগামী ১৯ মে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ছয়জন প্রার্থী এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনের প্রার্থীরা হলেন- নীতি নির্ধারণী পরিষদের সদস্য এবং সাবেক সংস্কৃতি ও ইসলামি দিকনির্দেশনা মন্ত্রী সাইয়্যেদ মোস্তাফা মিরসালিম, বর্তমান ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ইসহাক জাহাঙ্গিরি, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি, ইমাম রেজা (আ.)’র মাজার কেন্দ্রিক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক কার্যক্রমের প্রধান তত্ত্বাবধায়ক ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি, রাজধানী তেহরানের বর্তমান মেয়র মোহাম্মাদ বাকের কলিবফ এবং সাবেক ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ মোস্তাফা হাশেমি-তাবা।