মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের নৌবাহিনীতে এ মাসেই যুক্ত হচ্ছে ফাতেহ সাবমেরিন

পোস্ট হয়েছে: জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ 

news-image

ইরানের নৌবাহিনীতে এ মাসের শেষ নাগাদ যুক্ত হচ্ছে অত্যাধুনিক ফাতেহ সাবমেরিন। পরবর্তী প্রজন্মের এ সাবমেরিন সম্পূর্ণভাবে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। ইরানের নৌবাহিনীর প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল হোসেইন খানজাদি একথা জানিয়েছেন।

রিয়ার অ্যাডমিরাল খানজাদি বলেন, ডুবোজাহাজটির নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ২৯ জানুয়ারি জাহাজটি অপারেশনের জন্য বাহিনীর নৌবহরে যুক্ত হবে।

নৌ কর্মকর্তাদের তথ্যমতে, ফাতেহ সাবমেরিন শতভাগ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। ৬০০ টন ওজন শ্রেণির সাবমেরিনটি হচ্ছে সেমি-হ্যাভি সাবমেরিন এবং এতে টর্পেডো ও নেভাল মাইনের মতো অস্ত্র বসানো হয়েছে। এ সাবমেরিন সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ২০০ মিটার পানির নিচ দিয়ে চলতে পারে এবং একটানা পাঁচ সপ্তাহ পানির নিচেই থাকতে পারবে।

এদিকে, ‘দামাভান্দ’ ড্রেস্ট্রয়ারের মেরামত কাজের অগ্রগতিতে প্রশংসা করেন নৌবাহিনী প্রধান। তিনি জানান, বিশাল ডেস্ট্রয়ার জাহাজটির মেরামত কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। শিগগিরই এটিও নৌবহরে যুক্ত হবে।

উল্লেখ্য, ‘দামাভান্দ’ নামের ইরানি ডেস্ট্রয়ারটি ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে কাসপিয়ান সাগরে খারাপ আবহাওয়ার মধ্যে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এছাড়া ‘ডেনা’ নামে অপর একটি ডেস্ট্রয়ার নির্মাণের কাজ করছে ইরান। আগামী কয়েকমাসের মধ্যে মুজে শ্রেণ্রির জাহাজটির সর্বশেষ সংস্করণ নৌবহরে যুক্ত হবে। গেল মাসে নতুন প্রজন্মের আরেকটি মুজে শ্রেণির ড্রেস্টয়ার ‘সাহান্দ’ পারস্য উপসাগরে ইরানি নৌবহরে যুক্ত হয়েছে। সূত্র: মেহর নিউজ এজেন্সি।