সোমবার, ১৭ই জুন, ২০১৯ ইং, ৩রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে সর্বোচ্চ নেতার অনুমোদন

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ৩, ২০১৭ 

news-image

ইরানে দ্বিতীয় দফায় প্রেসিডেন্ট হিসেবে অনুমোদন পেলেন নবনির্বাচিত ড. হাসান রুহানি।ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বৃহস্পতিবার তেহরানের ইমাম খোমেনী মসজিদ কমপ্লেক্সে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিক্রিতে সই করে রুহানিকে দ্বিতীয় দফা প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনের অনুমোদন দেন।অনুষ্ঠানে সরকারের তিন বিভাগের প্রধান, সামরিক বাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা, আলেম, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, বিদেশি কূটনীতিকসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৯ মে ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এবং সে নির্বাচনে শতকরা ৫৭ ভাগ ভোট পেয়ে হাসান রুহানি দ্বিতীয় দফা প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হন।

ইরানের নির্বাচনি আইন অনুযায়ী, নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে জাতীয় সংসদে শপথ নেয়ার আগে সর্বোচ্চ নেতার অনুমোদন লাভ করতে হয়। এ প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে সর্বোচ্চ নেতা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফলকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেন।

অনুষ্ঠানে সর্বোচ্চ নেতা বলেন, ১৯৭৯ সালে ইসলামি বিপ্লব সফল হওয়ার আগ পর্যন্ত দেশের জনগণ নির্বাচনে ভোট দিতে পারতেন না এবং  দেশ পরিচালনায় জনগণকে বাধা দেয়া হতো। কিন্তু বিপ্লবের পর সে অবস্থার অবসান হয়েছে এবং দেশে ধর্মভিত্তিক ইসলামি শাসন ব্যবস্থা চালু হয়েছে।

নতুন প্রশাসনকে সর্বোচ্চ নেতা ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ওপর গুরুত্ব দিতে এবং খাঁটি ইসলামি আইন বাস্তবায়নের জন্য তাগিদ দেন। এ সময় তিনি ইরানের কর্মকর্তাদের প্রশংসা করে বলেন, শত্রুরা ইরানকে কোণঠাসা করার চেষ্টা সত্ত্বেও ইরানি কর্মকর্তারা বিশ্বের সঙ্গে সমন্বয় করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও জাতির সঙ্গে সম্পর্ক বাড়ানোর ওপরও গুরুত্বারোপ করেন। আয়াতুল্লাহ খামেনেয়ী বলেন, ইরানের ওপর মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা তেহরানকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে সাহায্য করেছে। – পার্সটুডে, ইরনা।