রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের জিডিপিতে পর্যটনের অবদান ১১.৮ বিলিয়ন ডলার

পোস্ট হয়েছে: জুন ১৮, ২০১৯ 

news-image

ইরানের মোট জাতীয় উৎপাদনে (জিডিপি) পর্যটন খাতের অবদান ১১ দশমিক ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিগত ফারসি বছর ১৩৯৭ সালে পর্যটন শিল্প থেকে এই অর্থ আয় হয়েছে। মঙ্গলবার ইরানের পর্যটন সংস্থার প্রধান আলি-আসকার মুনেসান এই তথ্য জানিয়েছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ‘সেন্ট্রাল ব্যাংক অব ইরানের’ তথ্যমতে, গত বছর ইরানের জিডিপিতে পর্যটন শিল্প ১১ দশমিক ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের অবদান রাখতে সক্ষম হয়। এছাড়া একই বছর জিডিপিতে হ্যান্ডিক্রাফ্ট রপ্তানি থেকে যোগ হয় আরও ৬শ মিলিয়ন ডলার।

মুনেসান বলেন, ‘‘পর্যটন শিল্প থেকে যেসব ক্ষেত্রে লাভবান হওয়া গেছে তার মধ্যে এই খাতে কর্মসংস্থানের টেকসইতা অন্যতম। গত বছর ইরানের কর্মসংস্থান তৈরিতে যেসব খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে তার মধ্যে অন্যতম ছিল সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, হস্তশিল্প ও পর্যটন সংস্থা (সিএইচএইচটিও)। গত বছর আমরা ২ লক্ষাধিক লোকের কর্মসংস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছি।’’

বিশ্ব ব্যাংক প্রকাশিত সর্বশেষ তথ্যমতে, ২০১৭ সালে ইরানের জিডিপির পরিমাণ ছিল ৪৫৪.০১৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

সিএইচএইচটিও প্রধান মুনেসান গত মে মাসে জানান, গত ফারসি বছর ১৩৯৭ সালে আন্তর্জাতিক পর্যটকরা ইরান ভ্রমণে ব্যয় করেছে ১১ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার। তিনি বলেন, সময়ের ব্যবধানে বিশ্ব অর্থনীতিতে পর্যটন খাত আয়ের তৃতীয় উৎসতে পরিণত হয়েছে। সুতরাং আমাদের দেশের এই খাতে আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া উচিত।

সিএইচএইচটিও এর তথ্যমতে, গত বছরে আগের বছরের তুলনায় ইরান ভ্রমণ করা পর্যটকদের সংখ্যা বেড়েছে ৫২ দশমিক ৫  শতাংশ। এই বছর সর্বমোট ৭৮ লাখ বিদেশি পর্যটক ইরান ভ্রমণ করে। সূত্র: তেহরান টাইমস।