রবিবার, ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

ইরানের কিশ দ্বীপে পর্যটকের হার বৃদ্ধি ১৬ ভাগ

পোস্ট হয়েছে: আগস্ট ৯, ২০১৬ 

news-image

ইরানের কিশ দ্বীপে গ্রীষ্মকালীন অবকাশ শুরু হবার সঙ্গে সঙ্গে পর্যটকদের আগমন ১৬ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত বছরের তুলনায় ইতিমধ্যে এ দ্বীপে পর্যটকদের আগমনের হার বৃদ্ধি পেয়েছে ২৫ ভাগ। সমুদ্রে ভ্রমণের ব্যবস্থা আগের চেয়ে বৃদ্ধি করার পর তা আকৃষ্ট করছে কিশ দ্বীপের পর্যটকদের। কিশ ফ্রি জোন অর্গানাইজেশন এ তথ্য দিয়েছে। এছাড়া অনেক পর্যটক কিশ দ্বীপে আসার বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তা এখনো হালনাগাদ করা হয়নি। আগামী ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কিশ দ্বীপে পর্যটকদের জন্যে নানা আকর্ষণীয় প্যাকেজ চালু থাকবে।

4bk53c2878d86a6u3p_800C450

একই সঙ্গে কিশ দ্বীপে স্থানীয় হোটেল, মটেল, এয়ারলাইন্স, ক্লাব ও বিভিন্ন লজ ভাড়া দেয়া ছাড়াও পর্যটকদের ঘিরে আর্থিক কার্যক্রম বেশ বৃদ্ধি পেয়েছে। গত মাসে তুরস্কে পর্যটকদের ভ্রমণে কড়াকড়ি ও নিষেধাজ্ঞা আরোপ হওয়ায় লাভবান হচ্ছে কিশ দ্বীপ। একই সঙ্গে কিশ দ্বীপকে পর্যটকদের জন্যে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি পাওয়ায় এর ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে তোরাঞ্জনামে ইরানের প্রথম মেরিন হোটেল গত ফেব্রুয়ারিতে যাত্রা শুরু করে। 

4bk84376868cfabujy_800C450

পারস্য উপসাগরে কিশ দ্বীপটি হচ্ছে সাড়ে ৯১ বর্গকিলোমিটার আয়তনের। যেখানে রয়েছে কেনাকাটার অবাধ সুযোগ। ফি ট্রেড জোন হওয়ায় বিদেশি পর্যটকদের অনেকে এখানে ছুটে আসেন। ২০১০ সালে নিউইয়র্ক টাইমস কিশ দ্বীপকে বিশ্বের ১০ম সুন্দরতম দ্বীপ হিসেবে ঘোষণা দেয়। সূত্র: ফিন্যান্সিয়াল ট্রিবিউন

4bk5dca7c3d3c66u57_800C450

4bk58aa7258d686u4m_800C450

4bk8fa2c6c9214bujv_800C450