বৃহস্পতিবার, ২৬শে জুন, ২০১৯ ইং, ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘ইরানি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তুর্কি প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা’

পোস্ট হয়েছে: মার্চ ৬, ২০১৬ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, তুরস্কের সঙ্গে তার দেশের সহযোগিতামূলক সম্পর্ক মধ্যপ্রাচ্যের চলমান সংকট নিরসনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।শনিবার ইরান সফররত তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী আহমেদ দাউদওগ্লুর সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা বলেছেন। বৈঠকে ড. রুহানি সন্ত্রাসবাদ-বিরোধী লড়াইয়ে দু দেশের প্রচেষ্টা জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, “ইরান ও তুরস্কের সামনে অভিন্ন লক্ষ্য ‌এবং স্বার্থ রয়েছে। দু দেশের মধ্যে সহযোগিতা জোরদারের মাধ্যমে এ অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতার ভিত্তি মজবুত করতে হবে। তিনি সন্ত্রাসবাদকে অভিন্ন শত্রু হিসেবেও উল্লেখ করেন।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের গুরুত্ব তুলে ধরে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, বাইরের দেশগুলো কখনই আঞ্চলিক সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে নি বরং তারা শুধু নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের চেষ্টা করে। তিনি বলেন, “আমরা মনে করি আঞ্চলিক সমস্যা এ অঞ্চলের দেশগুলোকেই সমাধান করতে হবে। এ ক্ষেত্রে ইরান ও তুরস্ক নিঃসন্দেহে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে।

নানা ক্ষেত্রে দুই প্রতিবেশীর অভিন্নতা তুলে ধরে ড. হাসান রুহানি বলেন, তেহরান ও আংকারা মুসলিম বিশ্বের মধ্যকার ঐক্য জোরদারের ক্ষেত্রে গঠনমূলক এবং কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারে। তিনি আরো বলেন, ইরান ও তুরস্ক দু দেশই বিশ্বাস করে, বিশ্বের যেকোনো দেশের জনগণ সেই দেশের ভাগ্য নির্ধারণ করবে। এছাড়া, প্রতিটি দেশের ভৌগোলিক অখণ্ডতার প্রতি সম্মান করা উচিত। পাশাপাশি যুদ্ধ বন্ধ করা উচিত এবং উদ্বাস্তুদের জন্য ত্রাণ-সামগ্রী পাঠানো দরকার।

দাউদওগ্লুর সঙ্গে বৈঠকে প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি আরো বলেন, চলমান আঞ্চলিক সমস্যা ইরান ও তুরস্কের মধ্যকার সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে নি এবং কোনোকিছুই তেহরান-আংকারার সম্পর্ক বাড়ানোর পথে বাধা সৃষ্টি করতে পারবে না।

বৈঠকে দাউদওগ্লু বলেন, ইরানের সঙ্গে নানা ক্ষেত্রে সম্পর্কের নতুন অধ্যায় রচনা করতে তার দেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। দু দেশের মধ্যকার সহযোগিতা আরো উঁচু মাত্রায় নেয়ার বিষয়ে ইরান ও তুরস্কের সক্ষমতাও অনেক। এছাড়া, সন্ত্রাসবাদবিরোধী লড়াইয়ে ইরানকে সহযোগিতা করতে তুরস্কের প্রস্তুতির কথা উল্লেখ করেন দাউদওগ্লু।

শুক্রবার দিবাগত রাতে তুর্কি প্রধানমন্ত্রী ইরান এসে পৌঁছান। দু দিনের এ সরকারি সফরে তিনি একটি উঁচু পর্যায়ের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। এর আগে গত বছরের এপ্রিল মাসে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান ইরান সফর করেছিলেন। সূত্র: আইআরআইবি