মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘ইরানি জনগণের প্রতি বিশ্ববাসীর সম্মান শত্রুদের ব্যর্থতার প্রমাণ’

পোস্ট হয়েছে: মার্চ ২৪, ২০১৯ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, তার দেশের জনগণের প্রতি বিশ্ববাসীর সম্মান দেখানো থেকে পরিষ্কার হয় যে, তেহরানের বিরুদ্ধে শত্রুদের নিষেধাজ্ঞা ব্যর্থ হয়েছে। ফারসি নতুন বছর ‘নওরোজ’ উপলক্ষে দেয়া বাণীতে একথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট রুহানি।

নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানাতে তিনি টেলিভিশনের পর্দায় উপস্থিত হন। সেখানে তিনি বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে বলেন, দেশের সমস্যা সমাধান করতে তার প্রশাসন এমন কোনো প্রচেষ্টা নেই যা বাদ দিচ্ছে। এর আগে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী ইরানি জনগণের উদ্দেশে নওরোজের বাণী দেন।

প্রেসিডেন্ট রুহানি তার দেশের জনগণের শান্তিপ্রিয়তার কথা উল্লেখ করে বলেন, ইরানিরা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, “আমাদের জাতি সবসময় এ অঞ্চলে ও বিশ্ব অঙ্গনে শান্তি ও স্থিতিশীলতা তৈরি করেছে। গত বছর ঐক্যবদ্ধ চেষ্টার মাধ্যমে আমাদের নিবেদিত সেনারা ও কূটনীতিকরা ইরাক, সিরিয়া এবং লেবাননের পাশাপাশি পুরো মধ্যপ্রাচ্যে স্থিতিশীলতা আনতে সক্ষম হয়েছে।”

ইরানে নওরোজের আয়োজন

ইরানের প্রেসিডেন্ট এ সময় প্রতিবেশী যেসব দেশে নওরোজ উদযাপিত হচ্ছে তাদেরকে অভিনন্দন জানান। গত বৃহস্পতিবার থেকে ফারসি নববর্ষ শুরু হয়েছে।

গত বছর সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বিজয়সহ ইরান যেসব খাতে সাফল্য অর্জন করেছে তার প্রশংসা করেন প্রেসিডেন্ট রুহানি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এবং আন্তর্জাতিক আদালতেও ইরানের জণগণ বিজয়ী হয়েছেন বলে তিনি মন্তব্য করেন। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইরানি জনগণের মধ্যে বিভাজন সৃষ্টি করে ওয়াশিংটন ইরানকে সংকটের মধ্যে ফেলে রাখতে চায়।

প্রেসিডেন্ট রুহানি জোর দিয়ে বলেন, “আমি ইরানের জনগণকে জানাতে চাই যে, ওয়াশিংটনের ক্ষমতাসীন বিদ্বেষী প্রতিশ্রুতি ভঙ্গকারীরা সমস্যার শুরু করেছে কিন্তু এর শেষ আমাদের হাতে।” তিনি বলেন, “যারা অপরাধ করবে এবং প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করবে তাদের মনে রাখতে হবে যে, এই পথ তাদের জন্য অনুকূল হবে না।” পার্সটুডে।