শুক্রবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৮ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

‘আমেরিকার ঐতিহ্যবাহী মিত্ররাই এখন ইরানের পাশে’

পোস্ট হয়েছে: অক্টোবর ১৮, ২০১৭ 

news-image

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি বলেছেন, পরমাণু সমঝোতা ইস্যুতে আমেরিকার ঐতিহ্যবাহী মিত্ররাই এখন তেহরানের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে।

শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা সম্পর্কে বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্য দেয়ার পর মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট রুহানি এ কথা বলেন। হোয়াইট হাউজ থেকে দেয়া ভাষণে ট্রাম্প ওইদিন পরমাণু সমঝোতাকে প্রত্যয়ন করতে অস্বীকৃতি জানান এবং ইরান সম্পর্কে বাজে ভাষায় ভিত্তিহীন কথাবার্তা বলেছেন।

এ সম্পর্কে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, ট্রাম্পের বক্তব্যের পর ইউরোপের মতো মার্কিন মিত্ররা ওয়াশিংটনের পক্ষ নেয়া থেকে শুধু বিরতই থাকে নি বরং তারা দ্রুত বিবৃতি দিয়েছে এবং ট্রাম্পের বক্তব্যের বিষয়ে নিজেদের চূড়ান্ত বিরোধিতার কথা ঘোষণা করেছে। একইসঙ্গে তারা পরমাণু সমঝোতার প্রতি সমর্থন জানিয়েছে এবং ইরানের সঙ্গে সহযোগিতার কথা বলেছে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, আন্তর্জাতিক এ চুক্তি অসম্মান করার জন্য ট্রাম্প প্রশাসন এখন একঘরে হতে চলেছে। ইরান সম্পর্কে ট্রাম্পের ভিত্তিহীন বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে প্রেসিডেন্ট রুহানি আরো বলেন, পরমাণু সমঝোতা নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে ইরানের জনগণের সংহতির কারণে তেহরান সম্পর্কিত নীতি পর্যালোচনা করতে বাধ্য হবে আমেরিকা।

শুক্রবার ইরান-বিরোধী বক্তব্য দেয়ার পর ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান ফেডেরিকা মোগেরিনি, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল, ব্রিটিশ প্রধামন্ত্রী থেরেসা মে এবং ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন পরমাণু সমঝোতার প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। পাশাপাশি রাশিয়াও ইরানের সঙ্গে সমঝোতা বাস্তবায়নে সহযোগিতা করে যাবে বলে জোরালো প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। – পার্সটুডে।