শুক্রবার, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

English

আগের চেয়ে বেশি গতিতে পরমাণু তৎপরতা শুরু করবে ইরান: জারিফ

পোস্ট হয়েছে: এপ্রিল ২২, ২০১৮ 

news-image

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলে তার দেশ আগের চেয়ে অনেক বেশি গতিতে নিজের পরমাণু তৎপরতা আবার শুরু করবে। ওয়াশিংটন সফররত জারিফ মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিবিএস’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

তিনি বলেন, মার্কিন সরকার পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলে ইরান অনেকগুলো পদক্ষেপ নেয়ার পরিকল্পনা চূড়ান্ত করে রেখেছে যা সময়মতো বাস্তবায়ন করা হবে।

মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবিত পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সম্প্রতি স্বীকার করেছেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান কখনো পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা করেনি। তার এ স্বীকারোক্তি প্রমাণ করে তেহরানের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেয়া হয়েছে।

পম্পেও গত ১২ এপ্রিল মার্কিন সিনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটিতে দেয়া বক্তব্যে বলেন, “পরমাণু সমঝোতা স্বাক্ষরের আগেও ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা করেনি। এবং এখনো আমি যতদূর জানি এ সমঝোতা না থাকলেও ইরান যে পরমাণু অস্ত্র তৈরির দিকে ঝুঁকে পড়বে সেরকম কোনো আলামত নেই।”

এদিকে ইরানের পরমাণু শক্তি সংস্থার প্রধান আলী আকবর সালেহি শনিবার তেহরানে বলেছেন, আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলে তেহরান এমন পদক্ষেপ নেবে যা দেখে শত্রুরা বিস্মিত হবে।

২০১৫ সালের জুলাই মাসে ছয় পশ্চিমা শক্তির সঙ্গে ইরান পরমাণু সমঝোতা সই করে যার বাস্তবায়ন শুরু হয় ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে। কিন্তু ওই সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী দেশ আমেরিকা শুরু থেকেই এটি বাস্তবায়নে গড়িমসি করে আসছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বহুবার এ সমঝোতাকে ‘ভয়ঙ্কর’ আখ্যায়িত করে এটি বাতিলের দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু তার এ দাবি আন্তর্জাতিক সমাজের কঠোর বিরোধিতার সম্মুখীন হয়েছে। শেষ পর্যন্ত ট্রাম্প এ সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেয়ার হুমকি দিয়েছেন। –  পার্সটুডে।