মঙ্গলবার, ১২ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং, ২৮শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

অস্কারে নারী চলচ্চিত্রকারের ছবি পাঠালো ইরান

পোস্ট হয়েছে: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৭ 

news-image

আমেরিকান মোশন পিকচার একাডেমি পুরস্কার বা অস্কারের জন্য এবার এক নারী চলচ্চিত্রকারের ছবি পাঠিয়েছে ইরান। আগামী বছর অনুষ্ঠিতব্য ৯০ তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডের আসরে দেশটির পক্ষে অংশ নেবে নারগেস আবিয়ার পরিচালিত যুদ্ধ-বিরোধী ড্রামা ‘ব্রেদ’। উৎসবের বিদেশি ভাষা বিভাগে‘সেরা ছবি’র দৌড়ে অংশ নেবে ছবিটি।

প্রসংশিত চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন নারগেসের স্বামী মোহাম্মাদ হোসেইন কাশেমি। ‘ব্রেদ’ বিদেশি ভাষার ছবি বিভাগে ইরানের পক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

তেহরান টাইমসের খবরে বলা হয়, ইরানের ৯ জন চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি ১০টি ছবির সংক্ষিপ্ত তালিকা থেকে ‘ব্রেদ’ ড্রামাটিকে বাছাই করেন। এ তালিকায় মোহাম্মাদ হোসেইন মাহদাভিয়ান পরিচালিত ‘দ্য মিডডে ইভেন্ট’, পারভিজ শাহবাজি পরিচালিত ‘ম্যালেরিয়া’ ও হামিদ নেমাতোল্লাহর ‘সাবডিওয়েড’ রয়েছে।

ড্রামাটিতে চারটি শিশুর কাহিনি তুলে ধরা হয়েছে, যাদের মা কয়েক বছর আগে মারা যায়। ১৯৮০ সালের সেপ্টেম্বরে ইরাকের হামলার প্রেক্ষাপটকে ঘিরে ছবিটি তৈরি করা হয়েছে। মায়ের মৃত্যুর পর তাদের বাবা যুদ্ধে নিয়োজিত ইরানি স্বেচ্ছাসেবীদের সঙ্গে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

ছবিটি এর আগে বেশ কয়েকটি ইরানি ও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবেও প্রসংশিত হয়েছে।এ পর্যন্ত দুইবার ইরানি চলচ্চিত্র সেরা বিদেশি ভাষার ছবি হিসেবে অস্কার জিতেছে। ২০১৭ সালে ‘দ্য সেলসম্যান’ ও ২০১২ সালে ‘এ সেপারেশন’ ছবিদ্বয় পুরস্কার জিতে। দুটি ছবিই পরিচালনা করেছেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্রকার আসগার ফারহাদি।

এদিকে, অস্কারে একজন নারী চলচ্চিত্রকারের ছবি পাঠানোয় আনন্দ প্রকাশ করেছেন ‘ব্রেদ’ পরিচালকের স্বামী মোহাম্মাদ হোসেইন কাশেমি। বুধবার তাসনিম সংবাদ সংস্থাকে তিনি বলেছেন, ‘ছবি তৈরি ও আন্তর্জাতিক উৎসবে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ক্ষেত্রে নারীদের বিশাল সম্ভাবনা রয়েছে।’

৯০ তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডের অনুষ্ঠান ২০১৮ সালের ৪ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে অনুষ্ঠিত হবে। সূত্র: তেহরান টাইমস।