বুধবার, ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

English

অন্ধদের জন্য নয়া স্মার্টফোন বানালেন ইরানি গবেষক

পোস্ট হয়েছে: ডিসেম্বর ১৭, ২০১৭ 

news-image

হাতে হাতে স্মার্টফোন এখন যেন যুগের চাহিদা। আর এ ক্ষেত্রে পিছিয়ে থাকবে না দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরাও। ইরানি গবেষক আসরা পাকনাহাদ নতুন ধরনরে একটি স্মার্টফোন আবিষ্কার করেছেন। এতে রয়েছে একটি স্মার্ট স্টিক (ব্রেসলেট), যাতে আঙ্গুল দিয়ে স্পর্শ করে স্মার্টফোন চালাতে পারবেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরাও।

আসরা পাকনাহাদ ইরানের ইসলামিক আজাদ ইউনিভার্সিটি সানান্দাজ শাখার গবেষক। সংবাদ সংস্থা মেহর নিউজ এজেন্সিকে তিনি বলেন, তার টিম একটি স্মার্ট স্টিক তৈরি করেছেন। যার মাধ্যমে আঙ্গুলের স্পর্শে  দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা স্মার্টফোন চালাতে পারবেন।

মূলত তাদের তৈরি ব্রেসলেটটি অ্যান্ড্রয়িড মোবাইল ফোনে ব্লুটুথের মাধ্যমে সংযোগ দেওয়া হবে। এছাড়া এই ব্রেসলেটটি সেল ফোনের কাজও করবে।

তিনি জানান, ব্রেসলেটে থাকা ব্রেইল (দৃষ্টিহীনদের সহায়ক এক পদ্ধতি) কিবোর্ড ব্যবহার করে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা বার্তা পাঠাতে পারবেন এবং তাদের মানসিক অবস্থা বা অনুভূতি বর্ণনা করতে পারবেন। এ ফোনে কল ধরা ও বাতিল করার জন্য বাটন থাকবে বলে জানান তিনি।

পাকনাহাদের তথ্যমতে, দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা সহজেই যন্ত্রটি ব্যবহার করতে পারবেন এবং স্মার্ট স্টিকের মাধ্যমে অন্যদের মতোই তারা ফোন ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন।

স্মার্টফোনটির সুযোগ-সুবিধা তুলে ধরে ইরানি গবেষক বলেন, স্মার্ট গ্যাজেটের সঙ্গে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর যোগাযোগ রক্ষার জন্য অ্যালার্ট ও কম্পনের ব্যবস্থা থাকবে। যন্ত্রটিতে হেডসেটের সঙ্গে যুক্ত করার ব্যবস্থা, কন্টাক্ট লিস্টে প্রবেশের সুযোগ এবং বিশেষ অনুভূতি বা ব্যক্তিকে শনাক্ত করার সক্ষমতা থাকবে।

উল্লেখ্য, উনিশ শতকের গোড়ার দিকে ফ্রান্সে শত্রুর থেকে বাঁচার জন্য সেনাদের মেসেজ পাঠানোর জন্য এক ধরনের ডট প্রযুক্তির ব্যবহার করা হত। এই প্রযুক্তিতে গভীর অন্ধকারেও আঙ্গুলের স্পর্শে মেসেজ পড়া যেত। এই প্রযুক্তির আবিষ্কার করে ছিলেন লুইস ব্রেইল। ছয় ডটের এই প্রযুক্তিতে বর্ণ, শব্দ এবং অক্ষর লেখা ও পড়া যেতো। পাশাপাশি দুটি সারিতে তিনটি করে ডট থাকতো। এক একটি ডটকে বলা হতো ‘সেল’।

সূত্র: মেহের নিউজ এজেন্সি।